Sheersha Media

ব্রেকিং নিউজ

রাত ৯:৩৭ ঢাকা, বুধবার  ২১শে নভেম্বর ২০১৮ ইং

পেট্রলবোমায় ডেমরায় আহত ১ : বগুড়ায় নিহত ১

ডেমরায় একটি যাত্রীবাহী লেগুনায় পেট্রলবোমা নিক্ষেপ করেছে অবরোধ সমর্থকরা। এতে লিটন (৩২) নামে এক যাত্রী গুরুতর আহত হয়েছে। শুক্রবার সকাল ৭টার দিকে কোনাপাড়া কাঠেরপুল এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।
আহত লিটনকে অজ্ঞান অবস্থায় কোনাপাড়া মেডি হোপ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এসময় ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে আরও ৭ টি যানবাহন।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, সকালে অবরোধের সমর্থনে কয়েকজন পিকেটার ডেমরার কোনাপাড়া কাঠেরপুল এলাকায় ডেমরা-যাত্রাবাড়ী সড়কে রানীমহল থেকে ছেড়ে আসা একটি লেগুনায় ৩/৪ টি পেট্রলবোমা নিক্ষেপ করে পালিয়ে যায়। এতে লেগুনায় আগুন ধরে যায়। এসময় লাফ দিয়ে নামার সময় লিটনকে পিছন থেকে অন্য একটি লেগুনা ধাক্কা দিলে সে মাটিতে লুটিয়ে পড়ে। আগুন দেখে রাস্তায় চলাচলকারী অন্যান্য যানবাহগুলো দ্রুত সরে পড়ার সময় ৭টি গাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়। পরে হেলপার ও যাত্রীরা আগুন ধরে যাওয়া লেগুনাটির আগুন নিভিয়ে ঘটনাস্থল থেকে দ্রুত সরে পড়ে।
পরে পুলিশ খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে আসে।
হাসপাতালে জ্ঞান ফিরে আসলে লিটন পুলিশকে জানায়, হঠাৎ করে কয়েকজন দুর্বৃত্ত লেগুনাটিতে পেট্রলবোমা নিক্ষেপ করলে ভয় পেয়ে নামতে গিয়ে সে আহত হয়।

বগুড়ার শহরতলির বারপুর এলাকায় ফার্নিচার বোঝাই ট্রাকে দুর্বৃত্তদের ছোঁড়া পেট্রোল বোমার আগুনে দগ্ধ ট্রাক হেলপার আবদুর রহিম মারা গেছেন। শুক্রবার সকালে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি।
বৃহস্পতিবার রাত তাকে বগুড়ার শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতাল থেকে ঢামেকে পাঠানো হয়।
এর আগে রাত সাড়ে ৮টার দিকে ফার্নিচার বোঝাই ট্রাকে পেট্রোল বোমা ছুঁড়ে দুর্বৃত্তরা। এতে ফার্নিচার ভর্তি ট্রাকটি পুড়ে যায়। দগ্ধ হয় ট্রাক চালক টিটেন, হেলপার আবদুর রহিম ও ফার্নিচার মালিক সাজু। তাদের বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। কিন্তু হেলপার রহিমের অবস্থা আশংকাজনক হওয়া তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে প্রেরণ করা হয়। ঢামেকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শুক্রবার সকালে তার মৃত্যু হয়।
ছিলিমপুর ফাঁড়ির ইনচার্জ জানান, বগুড়া শহরতলির নুনগোলা এলাকা থেকে একটি ট্রাক পিরোজপুরে যাচ্ছিল। রাত সাড়ে ৮টার দিকে ট্রাকটি বারপুর এলাকায় উত্তরবঙ্গ মহাসড়কে পৌঁছলে পিকেটাররা পেট্রল বোমা নিক্ষেপ করে। বোমাটি ট্রাকের কেবিনে পড়লে সাথে সাথে আগুন ধরে যায়। আগুনে চালক টিটেন, ফার্নিচার মালিক শিবগঞ্জের মোকামতলার মৃত আবদুল মান্নানের ছেলে সাজু ও হেলপার আবদুর রহিম দগ্ধ হন। ফার্নিচারগুলো পুড়ে যায়। ফায়ার সার্ভিসের লোকজন এসে আগুন নিভিয়ে ফেলে।