ব্রেকিং নিউজ

রাত ১১:৫৮ ঢাকা, সোমবার  ১২ই নভেম্বর ২০১৮ ইং

পুষ্টিমান বজায় রেখে রান্নার কৌশল

শরীর সুস্থ রাখতে পর্যাপ্ত খাবার খাওয়া প্রয়োজন। সেই খাবারে থাকা চাই সঠিক পরিমানে পুষ্টি। কিন্তু খাবার টেবিলে সাজানো প্রিয় সব খাবারে পুষ্টিমান ঠিকঠাক বজায় থাকে কি? আসলে রান্না করতে গিয়েই খাবারের সবচেয়ে বেশি পুষ্টিমান নষ্ট হয়। অথচ একটু সচেতন হয়ে রান্না করলেই আশানুরূপ পুষ্টি পাওয়া সম্ভব। জেনে নেয়া যাক, পুষ্টিমান ধরে রেখে রান্না করার উপায়।

– শাকসবজি কাটার পর ধুতে গেলে তার পুষ্টি চলে যায়। তাই যাদের অভ্যাস কাটার পরে ধোয়া, তারা আজ থেকে অভ্যাস পরিবর্তন করার চেষ্টা করুন। তাতে শাকসবজির পুষ্টিমান ঠিক থাকবে।

– শাকের ভিটামিন তেলে দ্রবনীয়। অর্থাৎ সেদ্ধ হওয়ার আগে তেল দেয়া যাবে না। সেদ্ধ হওয়ার পরে তেল দিলে পুষ্টিগুণ বজায় থাকে।

– সবজি খুব ছোট করে না কেটে  একটু বড় টুকরো করুন। টুকরো গুলো একই আকারে রাখলে সেদ্ধ হতে একই সময় লাগবে। তাতে পুষ্টিমানও বজায় থাকবে।

– সবজি কাটার সময় খেয়াল রাখুন যতটা সম্ভব খোসা সহ কাটতে। কারণ খোসার নিচেই বেশিরভাগ পুষ্টিমান থাকে।

– রান্নার সময় ঢাকনা ব্যবহার করুন। এতে যেমন তাড়াতাড়ি রান্না হবে তেমন পুষ্টিগুণও বজায় থাকবে।

– কোন খাদ্যই বেশি সময় নিয়ে রান্না করা উচিত নয়। বেশি সেদ্ধ হলে পুষ্টিমানও বেশি নষ্ট হয়। তাই শাকসবজি, মাছ, মাংস বা ডিম রান্নায় অতিরিক্ত সময় নেয়া যাবে না।

– পরিমাণ মত পানি দিয়ে ভাত রান্না করুন। যেন ভাতের পুষ্টিকর মাড় ফেলে দিতে না হয়। কারণ মাড়ে থাকে ভাতের পুষ্টিগুণ।

FOLLOW US: