ব্রেকিং নিউজ

বিকাল ৩:১১ ঢাকা, বৃহস্পতিবার  ২০শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ ইং

“পুলিশের দেয়া চৌহদ্দির ভেতরে বিএনপি-আ. লীগ সমাবেশ করতে পারবে”

রাজধানীর নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে ৫ জানুয়ারি বিএনপিকে সমাবেশ করার অনুমতি দিয়েছে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন।
একইসঙ্গে ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগকে বঙ্গবন্ধু এভিনিউস্থ দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে সমাবেশ করার অনুমতি দেয়া হয়েছে।
এছাড়া রাসেল স্কয়ারেও আওয়ামী লীগ সমাবেশ করার অনুমতি পেয়েছে বলে জানিয়েছেন দলটির যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ।
সোমবার দুপুরে নগর ভবনে এক সংবাদ সম্মেলনে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মেয়র সাঈদ খোকন সমাবেশের অনুমতি দেয়ার এই সিদ্ধান্তের কথা জানান।
তিনি বলেন, রাজনৈতিক দলগুলোর মতামত প্রকাশের সুযোগ দানের বিষয়টি বিবেচনা করে এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। তবে ভবিষ্যতে রাজনৈতিক দলগুলোকে সড়কের উপর সমাবেশ না করার অনুরোধ জানান তিনি।
এদিকে ঢাকা মেট্টোপলিট্রন পুলিশও (ডিএমপি) শর্ত সাপেক্ষে দুই দলকেই নিজ নিজ কার্যলয়ের সামনে সমাবেশ করার অনুমতি দিয়েছে।
ঢাকা মহানগর পুলিশ কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া সাংবাদিকদের এই তথ্য নিশ্চিত করেন।
তিনি বলেন, সমাবেশের অনুমতি পাওয়ার ক্ষেত্রে জননিরাপত্তা ও আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় বেশ কিছু শর্ত মানতে হবে দুই দলকে। ডিএমপি সমাবেশ করার অনুমতির ক্ষেত্রে যেসব শর্ত দিচ্ছে, তা হলো- নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে সমাবেশ শেষ করতে হবে; দুপুর থেকে মাগরিবের আজানের পূর্বেই শেষ করতে হবে; মাইক ব্যবহার নিয়ন্ত্রণের মধ্যে থাকবে; দলীয় কার্যালয় এলাকায় সমাবেশ করতে হবে; যানজট তৈরি করা যাবে না; সড়ক অবরোধ করা যাবে না; ব্যানার ফেস্টুনের আড়ালে লাঠিসোঁটা আনা যাবে না;  মিছিল করে সমাবেশে আসা যাবে না; পুলিশের দেওয়া চৌহদ্দির ভেতরে অবস্থান নিয়ে সমাবেশ শেষ করতে হবে।
জননিরাপত্তার কথা ভেবে এমন শর্ত আরোপ করা হয়েছে বলে জানান তিনি।
উল্লেখ্য, ৫ জানুয়ারি দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনের দ্বিতীয় বর্ষপূর্তির দিন ‘গণতন্ত্র হত্যা’ দিবস পালনের জন্য রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যোনে সমাবেশ করার ঘোষণা দিয়েছিল বিএনপি। তাদের ঘোষণার পর ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগও একই দিনে ‘গণতন্ত্রের বিজয়’ দিবস পালনে সোহরাওয়ার্দী উদ্যোনে সমাবেশের ঘোষণা দেয়। উভয় দলের এই পাল্টাপাল্টি কর্মসূচির ফলে রাজনীতিতে আবারও উত্তেজনা দেখা দেয়।
এই পরিস্থিতিতে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন ও ডিএমপি দুই দলকে পৃথক জায়গায় সমাবেশ করার অনুমতি দিল।