Sheersha Media

ব্রেকিং নিউজ

রাত ৯:৪৩ ঢাকা, বুধবার  ১৪ই নভেম্বর ২০১৮ ইং

ফাইল ফটো

পুলিশের আলাদা ব্যাংক-কলেজ চাওয়া গণতান্ত্রিক মানসিকতা নয়, এটা কর্তৃত্ববাদীতা

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য লে. জে. (অব.) মাহবুবুর রহমান বলেছেন, পুলিশ এখন আলাদা বিভাগ চায়, ব্যাংক চায়, মেডিকেল কলেজ চায়- এটা কোন গণতান্ত্রিক মানসিকতা নয়; এটা কর্তৃত্ববাদীতা।

তিনি বলেন, আজ দেশের আইনশৃংখলা পরিস্থিতি ধসে পড়েছে। দেশে পারিবারিক নিরাপত্তা নেই, সামাজিক নিরাপত্তা নেই। মসজিদে মসজিদে বোমা হামলা হয়, জাপানি নাগরিক হত্যা হয়-বিদেশী নাগরিকদের হত্যা করা হয়। আর বিরোধী দলের নেতাকর্মীদের গুম-খুন করা হয়- এসব দেশের জন্য অশনি সংকেত। পুলিশের এসব দিকে নজর দেয়া উচিত, কিন্তু তারা তা করছে না।

শুক্রবার দুপুরে জাতীয় প্রেস ক্লাবে জাতীয়তাবাদী সাংস্কৃতিক দলের উদ্যোগে আয়োজিত এক আলোচনায় মাহবুবুর রহমান এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, আজকে স্বাধীনতার ঘোষক, মুক্তিযুদ্ধের বীর উত্তম খেতাব পাওয়া জিয়াউর রহমানকে ছোট করা হয়। জিয়াউর রহমান প্রথমে নিজ নামে পরে বঙ্গবন্ধুর নামে মহান স্বাধীনতার ঘোষণা করেন। তার স্বাধীনতার ঘোষণার পরই যুদ্ধের দাবানল জ্বল জ্বল করে বেজে উঠে। তিনি বহু দলীয় গণতন্ত্রের প্রবক্তা- তার বহুদলীয় রাজনীতির দ্বার উম্মুক্তের সুযোগ নিয়েই আজকের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভারত থেকে দেশে এসে রাজনীতি শুরু করেন।

মাহবুবুর রহমান বলেন, আমরা দেশে কোন হানাহানি চাই না। তাহলে আজকে কেন এসব কনফিøক্ট (দ্বন্দ্ব)। আমি মনে করি যারা অপশক্তি তারাই দ্বন্দ্ব জিইয়ে রাখার ষড়যন্ত্র করছে।

বিএনপির এই নেতা বলেন, আজ দেশে গণতন্ত্রের আকাল-গণতন্ত্রের সংকট চলছে। গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনতে হবে। কারণ, গণতন্ত্রের সংকট থেকে আজকে দেশে নানা সমস্যার সৃষ্টি। তাই আমি দেশবাসীর প্রতি আহ্বান জানাব, চলমান গণতান্ত্রিক আন্দোলনে তাদের একত্রিত হওয়া উচিত।

জাতীয়তাবাদী সাংস্কৃতিক দলের উদ্যোগে আয়োজিত এই আলোচনায় আরো বক্তব্য রাখেন বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা শামসুজ্জামান খান দুদু, অ্যাডভোকেট আহমেদ আজম খান, কেন্দ্রীয় নেতা অ্যাডভোকেট আবদুস সালাম, শিরিন সুলতানা প্রমুখ। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন হুমায়ুন কবির বেপারী।