ব্রেকিং নিউজ

সকাল ৭:১৬ ঢাকা, শুক্রবার  ২৫শে মে ২০১৮ ইং

আইজিপি শহীদুল হক
পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) একেএম শহীদুল হক, ফাইল ফটো

পুলিশকে জনগণের প্রত্যাশা অনুযায়ী সেবা দিতে হবে : আইজিপি

পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) এ কে এম শহীদুল হক জনগণের প্রত্যাশা অনুযায়ী সেবা প্রদানে আরও তৎপর হওয়ার জন্য ঊর্ধ্বতন পুলিশ কর্মকর্তাদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।

তিনি আজ বৃহস্পতিবার বিকেলে পুলিশ স্টাফ কলেজের আন্তর্জাতিক সম্মেলন কক্ষে ‘লিডারশিপ এন্ড ম্যানেজমেন্ট কোর্স ফর সিনিয়র পুলিশ এক্সিকিউটিভ’ কোর্সের সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এ আহ্বান জানান।

পুলিশ স্টাফ কলেজ এর রেক্টর এম সাদিকুর রহমানের সভাপতিত্বে এ অনুষ্ঠানে ভাইস রেক্টর ইব্রাহিম ফাতেমী, কলেজের অনুুষদ সদস্যগণ এবং প্রশিক্ষণার্থী কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

আইজিপি বলেন, সাম্প্রতিক সময়ে পুলিশি কার্যক্রমে ব্যাপক পরিবর্তন এসেছে। অপরাধের মাত্রা ও পরিধি ক্রমাগত ব্যাপক হচ্ছে, প্রযুক্তির দ্রুত বিকাশ ও প্রসার ঘটছে, যা পুলিশের জন্য চ্যালেঞ্জ হয়ে দাঁড়িয়েছে।

অপরদিকে, পুলিশের প্রতি জনগণের প্রত্যাশাও বেড়েছে। এ বাস্তবতা ও চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় পুলিশ কর্মকর্তাদের আরও জ্ঞানসমৃদ্ধ, দক্ষ ও প্রশিক্ষিত হতে হবে।

তিনি বলেন, আপনারা শুধু প্রশাসক নন বরং সেবক। সেবার মনোভাব নিয়ে জনগণের পাশে দাঁড়াতে হবে। পেশাদারীত্বের সাথে সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে অপরাধী সনাক্ত করে অপরাধ দমন করতে হবে।

পাঁচ দিনব্যাপী এ প্রশিক্ষণ কোর্সে ডিআইজি এবং অতিরিক্ত ডিআইজি পদমর্যাদার ১৯ জন কর্মকর্তা অংশগ্রহণ করেন। পরে আইজিপি প্রশিক্ষণার্থীদের মাঝে সনদপত্র বিতরণ করেন।

এর আগে সকালে পুলিশ স্টাফ কলেজ বাংলাদেশ-এ মানি লন্ডারিং ও টেররিস্ট ফাইনান্সিং কোর্সে সনদপত্র বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় আইজিপি বলেন, সন্ত্রাসবাদ একটি বৈশ্বিক সমস্যা। এ সমস্যা সমাধান কোন একক দেশের পক্ষে সম্ভব নয়। এজন্য প্রয়োজন আন্তর্জাতিক সহযোগিতা এবং সমন্বয়।

আইজিপি বলেন, জঙ্গি দমনে বাংলাদেশ পুলিশের অনেক সাফল্য রয়েছে, যা দেশে বিদেশে প্রশংসিত হয়েছে।

রেক্টর এম সাদিকুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ-এ নিযুক্ত কানাডার হাইকমিশনার বিনোত পিয়েরে লারামী বক্তব্য রাখেন।

হাইকমিশনার সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে বাংলাদেশ সরকারের কঠোর অবস্থানের ভূয়সী প্রশংসা করেন। তিনি প্রশিক্ষণলব্ধ জ্ঞান কাজে লাগানোর জন্য প্রশিক্ষণার্থীদের প্রতি আহ্বান জানান।

সভপতির বক্তব্যে রেক্টর বলেন, একবিংশ শতাব্দির চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় তথ্য প্রযুক্তির ব্যবহার ও প্রযুক্তিগত জ্ঞান অর্জনের মাধ্যমে পুলিশ কর্মকর্তাদেরকে অপরাধ মোকাবেলা করতে হবে।

তিনি এ কোর্সটি প্রশিক্ষণার্থী কর্মকর্তাদের সক্ষমতা ও দক্ষতা বৃদ্ধিতে সহায়ক হবে বলে আশা প্রকাশ করেন।
সপ্তাহব্যাপী এ প্রশিক্ষণ কোর্সে ২৫ জন পুলিশ কর্মকর্তা অংশগ্রহণ করেন।