ব্রেকিং নিউজ

রাত ৪:৫৪ ঢাকা, বুধবার  ১৯শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ ইং

‘পিতার গুলিতে প্রবাসী ফেরত পুত্র গুলিবিদ্ধ’

যশোরের ঝিকরগাছা উপজেলার নির্বাসখোলা ইউনিয়নের নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান নজরুল ইসলাম নিজের ছেলে সোহাগের (২২) পায়ে গুলি করেছেন বলে অভিযোগ উঠেছে।

শুক্রবার রাত আটটার দিকে নিজ বাড়িতে গুলিবিদ্ধ হওয়ার পর স্বজনরা সোহাগকে যশোর জেনারেল হাসপাতালে আনেন। জেনারেল হাসপাতালের রেজিস্ট্রারে ‘সোহাগ গুলিবিদ্ধ অবস্থায় ভর্তি হয়েছেন’ বলে উল্লেখ করা হয়েছে।

হাসপাতালে ভর্তির পর গুলিবিদ্ধ সোহাগ জানান, শুক্রবার রাত ৮টার দিকে তার বাবার সঙ্গে তুচ্ছ ঘটনা নিয়ে তর্কাতর্কি হয়। এক পর্যায়ে ক্ষিপ্ত হয়ে বাবা নজরুল ইসলাম লাইসেন্স করা শটগান দিয়ে তার পায়ের গোড়ালিতে এক রাউন্ড গুলি করেন।

পরে অবশ্য সোহাগ নিজের বক্তব্য থেকে সরে আসেন। তিনি বলেন, ‘পড়ে গিয়ে আঘাত লাগায়’ তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

হাসপাতালের জরুরি বিভাগে দায়িত্বরত ডা. আব্দুর রশিদ জানান, সোহাগের পায়ে গুলি করা হয়েছে। হাসপাতাল রেজিস্ট্রারেও সেভাবেই লেখা হয়েছে।

তবে চেয়ারম্যান নজরুল ইসলামের সঙ্গে যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি।

নজরুল ইসলাম নির্বাসখোলা ইউনিয়নের সাদীপুর গ্রামের বাসিন্দা এবং ওই ইউনিয়নের নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান। তার ছেলে সোহাগ দীর্ঘদিন বিদেশে থাকার পর তিন মাস আগে দেশে ফেরেন।

স্থানীয় এলাকাবাসী জানায়, চেয়ারম্যান নজরুলের দুই স্ত্রী। এর মধ্যে বড় স্ত্রী আঞ্জুয়ারা বেগমের ছেলে সোহাগ। পারিবারিক একটি বিষয় নিয়ে নজরুল ইসলামের সঙ্গে সোহাগের মনোমানিল্য চলে আসছিল।