ব্রেকিং নিউজ

রাত ১০:৩৮ ঢাকা, রবিবার  ২২শে জুলাই ২০১৮ ইং

পাহাড় ধসে মৃত্যু
পাহাড়ের পাদদেশে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে বসবাস করে বহু পরিবার। চট্টগ্রামে পাহাড় ধসের ঘটনা নতুন নয়। ২০১২ সালের জুন মাসে একটি পাহাড় ধসে প্রায় ৯০ জনের মৃত্যু হয়েছিল।

পাহাড় ধসে মৃতের সংখ্যা বেড়ে এখন ১৪৭ 

অতি বর্ষণে পাহাড় ধসে রাঙামাটি, বান্দরবান, চট্টগ্রাম, কক্সবাজারের টেকনাফ এবং খাগড়াছড়িতে নিহতের সংখ্যা সর্বশেষ খবর বুধবার রাত সাড়ে ১০টা অনুযায়ী ১৪৭ জনে পৌঁছেছে বলে জানা যাচ্ছে।

এর মধ্যে সবচেয়ে বেশি প্রাণহানি হয়েছে রাঙামাটিতে। সেখানে ১০৪ জন নিহত হবার বিষয়টি নিশ্চিত করেছে রাঙামাটি জেলা কর্তৃপক্ষ। মৃতদের মধ্যে মহিলা ও শিশু রয়েছে।

অন্যদিকে পাহাড় ধসে বান্দরবানে ৬ জন এবং চট্টগ্রামে মোট ৩৪ জন নিহত হয়েছেন।

ঢাকায় আন্ত:বাহিনী জনসংযোগ পরিদপ্তর জানিয়েছে, নিহতদের মধ্যে সেনাবাহিনীর দুজন অফিসার রয়েছে। এখনো কয়েকজন সেনা সদস্য নিখোঁজ আছে বলে তারা জানিয়েছেন।

বুধবার সকাল থেকে ফের আজকের উদ্ধার অভিযান চলছে।

তবে এসব জায়গায় মৃতের সংখ্যা আরো বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, রবিবার এবং সোমবার টানা ভারি বৃষ্টিপাতের কারণে বিভিন্ন জায়গায় পাহাড় ধসের ঘটনা ঘটে। ফলে পাহাড়ের পাদদেশে বসবাসকারী অনেক বাড়ি মাটি চাপা পড়েছে।