ব্রেকিং নিউজ

সকাল ১১:৩০ ঢাকা, শনিবার  ২২শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ ইং

পাটজাত পণ্যের শুল্কমুক্ত প্রবেশাধিকারের জন্য থাইল্যান্ডের প্রতি বাংলাদেশের আহ্বান

বাংলাদেশ থাইল্যান্ডের প্রতি দু’দেশের মধ্যে বাণিজ্য ব্যবধান কমিয়ে আনতে ঢাকা থেকে পাটজাত পণ্য রফতানির ক্ষেত্রে শুল্কমুক্ত প্রবেশাধিকারে সম্মত হতে আনুষ্ঠানিক আহ্বান জানিয়েছে।
পাট ও বস্ত্র প্রতিমন্ত্রী মির্জা আজম গতকাল বৃহস্পতিবার ব্যাংককে সেদেশের বাণিজ্য উপমন্ত্রী অপিরাদি তান্ত্রাপর্ন ও অর্থ উপমন্ত্রী ভিসুধি শ্রীসুফান এর সঙ্গে দ্বিপক্ষীয় বৈঠককালে থাই সরকারের কাছে এ আহ্বান জানান।
এ সময় পাট ও বস্ত্র মন্ত্রণালয়ের ভারপ্রাপ্ত সচিব ফরিদুদ্দিন আহমেদ চৌধুরী, থাইল্যান্ডে বাংলাদেশের দূত সাইদা মুনা তাসনীম ও বাংলাদেশ পাটকল সংস্থার (বিজেএমসি) চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল হুমায়ুন খালেদ অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন।
প্রতিমন্ত্রী গত ৩ জুন থেকে তার দু’দিনের থাইল্যান্ড সফরকালে দেশ ও বিদেশে পরিবেশ-বান্ধব পাট ও পাটজাত পণ্যের প্রসারের দিকটি অগ্রাধিকারের ভিত্তিতে তুলে ধরেন এবং চাল ও অন্যান্য পণ্য মজুদে পলিথিন ব্যাগের পরিবর্তে পাটের বস্ত্র ব্যবহার করার জন্য থাই নেতৃবৃন্দকে উৎসাহিত করেন।
পরে প্রতিমন্ত্রী সেখানে এক বিজনেস নেটওয়ার্ক নৈশভোজে অংশ নিয়ে থাই বিনিয়োগকারীদের প্রতি বাংলাদেশে সরকারি খাতের পাট ও বস্ত্র শিল্প ক্রয়ের আহ্বান জানান।
এর আগে বাংলাদেশের পাট ও বস্ত্র পণ্য ব্যাংককে প্রদর্শিত হয়।
পাট প্রতিমন্ত্রীর নেতৃত্বে বাংলাদেশের ৫ সদস্যের প্রতিনিধি দল বিভিন্ন দেশে বাংলাদেশী পাট পণ্যের বৃহত্তর বাজার প্রবেশাধিকার সুবিধা বাড়াতে থাইল্যান্ড, কম্বোডিয়া, ভিয়েতনাম ও চীন সফর করছে।
আগামী ১৫ জুন প্রতিমন্ত্রীর দেশে ফেরার কথা রয়েছে।