শীর্ষ মিডিয়া

ব্রেকিং নিউজ

সকাল ৯:৫১ ঢাকা, বৃহস্পতিবার  ১৩ই ডিসেম্বর ২০১৮ ইং

মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া
দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণমন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া বীর বিক্রম, ফাইল ফটো

নড়িয়ার ক্ষতিগ্রস্তরা ভিজিএফ সহযোগিতা পাবে : মায়া

দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণমন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া বীরবিক্রম বলেছেন, নড়িয়ার ক্ষতিগ্রস্ত মানুষকে ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত ভিজিএফ সহযোগিতা দেয়া হবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ত্রাণভান্ডারে ত্রাণের অভাব নেই। কেউ যাতে খাদ্যে কষ্ট না পায় তার জন্য সকলকে আন্তরিক হতে হবে।

আজ মঙ্গলবার নড়িয়া উপজেলার সাম্প্রতিক নদী ভাঙ্গন এলাকা পরিদর্শন করে ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের জন্য ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ শেষে তিনি সাংবাদিকদের এ কথা বলেন।

এ সময়ে স্থানীয় সংসদ সদস্য কর্নেল (অব.) শওকত আলী, আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক বিএম মোজাম্মেল হক এমপি, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. শাহ্ কামাল, আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক একেএম এনামুল হক শামীম, এডভোকেট নাভানা আক্তার এমপি, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক সৈয়দ এমএ হাসিম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

ত্রাণমন্ত্রী জানান, নড়িয়ার নদীভাঙ্গনে ক্ষতিগ্রস্ত প্রায় ৫ হাজার পরিবারের ত্রাণ সহায়তা হিসেবে ভিজিএফ ছাড়াও ঘরবাড়ি নির্মাণের জন্য প্রাথমিকভাবে ৫ হাজার বান্ডিল ঢেউটিন, ঘর নির্মাণ মঞ্জুরী হিসেবে ১ কোটি ৫০ লাখ টাকা, জরুরী প্রয়োজন মিটানোর জন্য ৫০ লাখ টাকা ও ১০ হাজার প্যাকেট শুকনো খাবার বরাদ্দ দেওয়া হয়।

এ সময় মন্ত্রী নড়িয়া উপজেলা দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কমিটির সভায় অংশগ্রহণ করেন। সভায় জেলা প্রশাসক কাজী আবু তাহের জানান, নড়িয়ার ডুবো চরের কারনে পার্শ্ববর্তী এলাকা বেশী করে ভাঙ্গছে। তাই ডুবোচরগুলোর ড্রেজিং করার জন্য ইতোমধ্যে ড্রেজার এসেছে। শিগগিরই ড্রেজিং শুরু হবে।

ক্ষতিগ্রস্ত সকল পরিবারের মানবিক দিকগুলো বিবেচনা করে দ্রুত তাদের খাদ্য, আশ্রয়, চিকিৎসা, সুপেয় পানির ব্যবস্থা করার জন্য দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সচিব উপজেলা কমিটিকে নির্দেশ প্রদান করেন।