ব্রেকিং নিউজ

দুপুর ২:৪৩ ঢাকা, শুক্রবার  ২১শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ ইং

ওবায়দুল কাদের
আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের, ফাইল ফটো

‘নেতাদের খুশী করার দরকার নেই’

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অর্জনকে কতিপয় নেতা-কর্মী বা জনপ্রতিনিধির খারাপ আচরণের জন্য ম্লান হতে দেয়া হবে না।

তিনি বলেন ‘যারা দলীয় শৃঙ্খলা বিরোধী এবং অপকর্ম করে তাদের সময় থাকতে সংশোধন হওয়া উচিত। তা না হলে কাউকে ছাড় দেয়া হবে না।’

দলীয় নেতা-কর্মীদের উদ্দেশ্যে ওবায়দুল কাদের আরো বলেন, ‘আপনারা শৃঙ্খলা পরায়ন হন। নেতাদের খুশী করার দরকার নেই। জনগণকে ভাল আচরণ দিয়ে খুশি করুন।’

ওবায়দুল কাদের আজ বিকেলে রাজধানীর মোহাম্মদপুরের সূচনা কমিউনিটি সেন্টারে ৩ নভেম্বর জেলহত্যা দিবসের আওয়ামী লীগের কর্মসূচী সফল করার লক্ষ্যে ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের এক বর্ধিত সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন।

ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের সভাপতি একেএম রহমতউল্লাহর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন দলের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল আলম হানিফ এমপি, এডভোকেট জাহাঙ্গীর কবির নানক এমপি ও সাংগঠনিক সম্পাদক একেএম এনামুল হক শামীম।

সভায় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাদেক খান, সহ-সভাপতি শেখ বজলুর রহমান, আসলামুল হক এমপি ও যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক এস এম মান্নান কচি।

ওবায়দুল কাদের বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিরুদ্ধে এখনও ষড়যন্ত্র চলমান। এখনও একটি বুলেট প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পেছনে তাড়া করছে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা না থাকলে আওয়ামী লীগের এবং দেশের উন্নয়ন ও সমৃদ্ধির কি হবে প্রশ্ন করে তিনি বলেন, দেশের উন্নয়ন ও সমৃদ্ধির জোয়ার থেমে যাবে, বাংলাদেশ থমকে দাঁড়াবে।

আওয়ামী লীগের সদ্যসমাপ্ত সম্মেলনে নির্বাচিত নেতাদের ফুলের শুভেচ্ছা জানানো বন্ধ করার জন্য নেতা-কর্মীদের প্রতি আহবান জানিয়ে কাদের বলেন, দেশের মানুষের প্রত্যাশা অনুযায়ী আওয়ামী লীগের সম্মেলন সম্পন্ন হয়েছে। এবার কাজে নেমে পড়তে হবে।
তিনি বলেন, সরকারের হাতে আর মাত্র দু’বছর সময় রয়েছে। কেননা সরকারের মেয়াদের শেষ তিন মাসের মধ্যে নির্বাচন হবে। এই সময়ের মধ্যে জনগণের সাথে ভালো ব্যবহার করে তাদের মন জয় করে দলকে ক্ষমতায় আনতে হবে।

নির্বাচন উপলক্ষে ইতোমধ্যে টিম ওয়ার্ক শুরু করা হয়েছে উল্লেখ করে আওয়ামী লীগের এ নেতা বলেন, ‘আমরা এজন্য দফায় দফায় বৈঠক করছি। অহেতুক সময় কাটানোর সুযোগ নেই। কেননা রাজনীতিতে পরিশ্রমের কোন বিকল্প নেই।’