ব্রেকিং নিউজ

বিকাল ৫:৩১ ঢাকা, শনিবার  ২২শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ ইং

তোফায়েল আহমেদ
বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ, ফাইল ফটো

‘নিহত জঙ্গিদের নিয়ে সন্দেহকারীরা জঙ্গী ও সন্ত্রাসের পক্ষে’

বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ বিএনপির শীর্ষ কয়েক নেতাকে ইঙ্গিত করে বলেছেন, কল্যাণপুরের অভিযানে নিহতরা জঙ্গি কিনা -এ নিয়ে যারা সন্দেহ করেন, তারা জঙ্গিবাদ এবং সন্ত্রাসের পক্ষে।

তিনি বলেন, আগামীতে ১১টি দেশ অর্থনীতির শীর্ষ কাতারে চলে যাবে। বাংলাদেশ এর মধ্যে অন্যতম। ধারাবাহিক সাফল্যের কারণে আন্তর্জাতিক বিশ্ব আমাদের সম্পর্কে এমন ভবিষ্যতবাণী করছে। কিন্তু এই অগ্রযাত্রাকে বাধাগ্রস্ত করতে দেশে জঙ্গি ও সন্ত্রাসী কার্যকলাপ চালানোর চেষ্টা হচ্ছে।

শনিবার দুপুরে নারায়ণগঞ্জ শহরের চাষাঢ়ায় বিকেএমইএ কমপ্লেক্স ভবনের ভিত্তপ্রস্তর স্থাপন ও নির্মাণ কাজের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে বাণিজ্যমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

তোফায়েল আহমেদ বলেন, যারা ২০১৩ সালে জঙ্গি তৎপরতা চালিয়ে ব্যবসা ব্যবসা-বাণিজ্যের ক্ষতি করেছে, ২০১৪ সালে নির্বাচনে অংশ না নিয়ে আইন প্রয়োগকারী সংস্থার ২৪ জন সদস্যকে হত্যা করার পাশাপাশি ২০১৫ সালে ৯৩ দিন আগুন সন্ত্রাস করেছে, তারাই আজকে এসব কার্যকলাপ করে আমাদের অগ্রযাত্রাকে বাধাগ্রস্ত করার চেষ্টা করছে। তবে এরা কোনদিন সফল হবেনা বলে তিনি মন্তব্য করেন।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অত্যন্ত দক্ষতার সাথে গুলশানের হলি আর্টিজান বেকারীতে জিম্মিদের উদ্ধার ও কল্যাণপুরের জঙ্গি প্রস্তুতি মোকাবেলার বিরল দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন।

বিকেএমইএ সভাপতি ও নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনের সংসদ সদস্য সেলিম ওসমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে সংসদ সদস্য এ কে এম শামীম ওসমান, লিয়াকত হোসেন খোকা ও হোসনেআরা বাবলি, বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব হেদায়েতুল্লাহ আল মামুন, এফবিসিসিআই সভাপতি আব্দুল মাতলুব আহমেদ, উইমেন চেম্বারের সভাপতি সেলিনা আহমেদ প্রমূখ উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানে বাণিজ্যমন্ত্রী নীট শিল্প-কারখানার মৃত ৮০ শ্রমিকের পরিবারের স্বজনদের মধ্যে দুই লাখ টাকা করে বীমা চেক তুলে দেন।
এর আগে তিনি শহরের চাঁনমারী এলাকায় নারায়ণগঞ্জ চেম্বার অব কমার্স ভবন পরিদর্শন করে নীট শিল্পের বিভিন্ন কোর্সের প্রশিক্ষণের উদ্বোধন করেন।