ব্রেকিং নিউজ

সকাল ৯:০৬ ঢাকা, মঙ্গলবার  ২৫শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ ইং

আন্দোলনে নিহতরা পাবে ‘জাতীয় বীর’-এর মর্যাদাসহ ক্ষতিপূরণ ও পুনর্বাসন

Like & Share করে অন্যকে জানার সুযোগ দিতে পারেন। দ্রুত সংবাদ পেতে sheershamedia.com এর Page এ Like দিয়ে অ্যাক্টিভ থাকতে পারেন।

বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব সালাহ উদ্দিন আহমেদ বলেছেন, চলমান গণআন্দোলনে যাদের প্রাণ বিসর্জিত হচ্ছে  তাদেরকে ‘জাতীয় বীর’-এর মর্যাদা দেয়া হবে, তাদের পরিবার ও সন্তানদের উপযুক্ত ক্ষতিপূরণ ও পুনর্বাসন করা হবে। তিনি বলেন, আন্তর্জাতিক মহলে অবৈধ সরকারের স্বীকৃতি ও সহানুভূতি আদায়ে ব্যর্থ হয়ে সরকার বর্তমানে নির্মম পতনের প্রহর গুণছে । রোববার গনমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে তিনি এ মন্তব্য করেন।

বিবৃতিতে সালাহ উদ্দিন আহমেদ বলেন, অবৈধ সরকার স্বীকৃতি ও সহানুভূতি আদায়ের প্রত্যাশা নিয়ে আন্তর্জাতিক মহলের দুয়ারে দুয়ারে ধর্ণা দিয়ে অবশেষে প্রত্যাখ্যাত হয়ে বর্তমানে নির্মম পতনের প্রহর গুণছে। জাতীয় ও আন্তর্জাতিকভাবে প্রত্যাখ্যাত অবৈধ সরকারের পতন এখন সময়ের ব্যাপার মাত্র। পেটোয়া পুলিশ-র‌্যাব-বিজিবি দিয়ে গণহত্যা চালিয়ে অবৈধ ক্ষমতা টিকিয়ে রাখতে পারবেন না। ইতিহাস থেকে শিক্ষা নিন, দ্রুত পদত্যাগ করে দেশকে বাঁচান।
বিবৃতিতে আরও বলা হয়, স্পষ্টতই একটি তুমুল বিতর্কিত এবং ভোটারবিহীন প্রহসনের নির্বাচন থেকে সৃষ্ট রাজনৈতিক সংকটকে জঙ্গিবাদের সমস্যা হিসেবে চিত্রিত করার অপকৌশল আন্তর্জাতিকভাবে বিশ্বাসযোগ্য করাতে ব্যর্থ হয়ে সরকার এখন চূড়ান্ত পর্যায়ের হত্যাযজ্ঞে মেতে উঠেছে।
বিরোধী জোটের নেতাকর্মীদে হত্যার নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে বিবৃতিতে বলা হয়, সময়ের পট পরিবর্তন হলে এর জন্য দায়ী ব্যক্তিদের আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালসহ উপযুক্ত আদালতে বিচারের আওতায় আনা হবে। চলমান গণআন্দোলনে যাদের প্রাণ বিসর্জিত হচ্ছে সরকারি বাহিনীর হাতে তাদেরকে ‘জাতীয় বীর’-এর মর্যাদা দেয়া হবে, তাদের পরিবার ও সন্তানদের উপযুক্ত ক্ষতিপূরণ ও পুনর্বাসন করা হবে এবং আন্দোলনে বিভিন্নভাবে আক্রান্ত হয়ে যারা পঙ্গুত্ব বরণ করেছেন তাদেরকে জাতীয় সম্মানসহ উপযুক্ত ক্ষতিপূরণ ও পুনর্বাসন করা হবে। তাদের সকলকেই এ প্রজন্মের ‘মুক্তিযোদ্ধা’ হিসেবে স্বীকৃতি প্রদান করা হবে বলে বিবৃতিতে উল্লেখ করা হয়।

Leave a Reply