ব্রেকিং নিউজ

বিকাল ৫:৫০ ঢাকা, বৃহস্পতিবার  ১৯শে এপ্রিল ২০১৮ ইং

হাসানুল হক ইনু

‘নির্বাচনে খালেদা জিয়াকে বাদ দিতে হবে’

তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু বলেছেন, নির্বাচনের পথে বিএনপিকে ‘জঙ্গি-সন্ত্রাসী, তাদের সমর্থক এবং মানুষ পোড়ানোর কারিগর ও খালেদা জিয়াকে বর্জন করতে হবে।

তিনি বলেন, ‘জামাতের সাথে বন্ধুত্ব, যুদ্ধাপরাধীদের পক্ষ নেয়া, আগুন সন্ত্রাস ও মানুষ পুড়িয়ে বিএনপি রাজনীতিতে যে ভুল করেছে, তার খেসারত দিতে হবে। গণতন্ত্রের টিকেট নিতে বিএনপিকে জঙ্গি-সন্ত্রাসী, তাদের সমর্থক এবং মানুষ পোড়ানোর কারিগর বেগম খালেদা জিয়াকে বাদ দিতে হবে। মনে রাখতে হবে নির্বাচন অপরাধীদের হালাল করার দর কষাকষির বিষয় নয়।’

তথ্যমন্ত্রী আজ রাজধানীর মিরপুর শহীদ বুদ্ধিজীবী কবরস্থান প্রাঙ্গণে জাতীয় পতাকার অন্যতম রূপকার ও মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক কাজী আরেফ আহমেদের ১৮তম শাহাদৎ দিবস উপলক্ষে স্মরণসভায় একথা বলেন।
এর আগে তিনি সেখানে কাজী আরেফের সমাধিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন।

হাসানুল হক ইনু বলেন, ‘দেশে জঙ্গি-সন্ত্রাসের এত উৎপাত কখনই হতো না যদি সামরিক জান্তা জিয়া ’৭৫ সালে বঙ্গবন্ধু হত্যার পর নেমে আসা অন্ধকারের গর্ত থেকে রাজাকার-যুদ্ধাপরাধীদের তুলে না আনতেন ও বিএনপি নেত্রী খালেদা জিয়া তাদের মদদ না দিতেন’।

তিনি বলেন, যথাসময়ে নির্বাচন হবে এবং জঙ্গি দমনও অব্যাহত থাকবে। নির্বাচনের পথে জঙ্গি দমনের কাজে একচুলও ছাড় দেয়া হবে না।

জাসদের ঢাকা পশ্চিমের সভাপতি মাইনুর রহমানের সভাপতিত্বে সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক শিরীন আখতার এমপিসহ নেতৃবৃন্দের মধ্যে মীর হোসেন আখতার, বীর মুক্তিযোদ্ধা শফি উদ্দিন মোল্লা, নূরুল আখতার, নূরুন্নবী, বাংলাদেশ ছাত্রলীগ সভাপতি সামছুল ইসলাম সুমন, কাজী সিদ্দিকুর রহমান, হাজী আব্দুস সালাম ও রফিকুল ইসলাম রাজা সভায় বক্তব্য রাখেন।