শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ
শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ, ফাইল ফটো

নিরপেক্ষতার সাথে বেসরকারি শিক্ষক বাছাই করা হয়েছে : শিক্ষামন্ত্রী

শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ কেন্দ্রীয়ভাবে ১২ হাজার ৬১৯ জন বেসরকারি শিক্ষক বাছাই সম্পূর্ণ নিরপেক্ষতার সাথে করা হয়েছে।

আজ রোববার প্রথমবারের মতো কেন্দ্রীয়ভাবে বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে শিক্ষক নিয়োগের ফলাফল প্রকাশ উপলক্ষে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে এক অনুষ্ঠানে মন্ত্রী এ কথা বলেন।

শিক্ষামন্ত্রী অনলাইনে ক্লিক করে এ ফলাফল প্রকাশ করেন।

প্রকাশিত ফলাফল অনুযায়ী, বেসরকারি স্কুল, কলেজ, মাদরাসা ও কারিগরি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে নিয়োগের জন্যে এ প্রার্থী বাছাই করেছে বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন ও প্রত্যয়ণ কর্তৃপক্ষ (এনটিআরসিএ)।

বাছাইকৃত প্রার্থীগণ এসএমএস-এর মাধ্যমে ইতোমধ্যে তাদের ফলাফল জেনে গেছেন বলে জানিয়েছে অনলাইন নিয়োগ প্রক্রিয়া পরিচালনা প্রতিষ্ঠান টেলিটক। বাছাইকৃত এসব প্রার্থীকে সংশ্লিষ্ট শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান নিয়োগপত্র প্রদান করবে।

এনটিআরসিএ-এর বিজ্ঞপ্তির প্রেক্ষিতে ৬ হাজার ৪৭০ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে চাহিদাকৃত ১৪ হাজার ৬৬৯টি শূন্য পদের বিপরীতে ১৩টি শিক্ষক নিবন্ধন পরীক্ষায় উত্তীর্ণদের মধ্য থেকে ১৩ লাখ ৭৫ হাজার ১৮৭টি আবেদন পাওয়া যায়। এসব আবেদন যাচাই করে এ ১২ হাজার ৬১৯ জন শিক্ষক নিয়োগের জন্য বাছাই করা হয়। মামলা, পদের বিপরীতে কোন আবেদন না পাওয়াসহ অন্যান্য কারণে বেশকিছু শূন্য পদের বিপরীতে প্রার্থী বাছাই করা সম্ভব হয়নি।

এ উপলক্ষে বক্তৃতায় শিক্ষামন্ত্রী বলেন, জাতীয় শিক্ষানীতি ২০১০-এ পাবলিক সার্ভিস কমিশনের অনুরূপ নিয়োগ প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে বেসরকারি শিক্ষক নিয়োগের কথা বলা হয়েছে। সে অনুযায়ী শতভাগ স্বচ্ছ, বিড়ম্বনামুক্ত ও নিরপেক্ষতার সাথে এসব শিক্ষক বাছাই করা হয়েছে।

জনাব নাহিদ বলেন, একটি অত্যন্ত যোগ্য কর্তৃপক্ষের মাধ্যমে নিয়োগপ্রাপ্ত এসব শিক্ষক নিজেদের সম্মানিত বোধ করবেন।

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. সোহরাব হোসাইন, এনটিআরসিএ’র চেয়ারম্যান এ এম এস আজহারসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।