ব্রেকিং নিউজ

রাত ২:৩১ ঢাকা, রবিবার  ২৩শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ ইং

নিজামীর ফাঁসি বহালের রায়ে রাষ্ট্রপক্ষের সন্তোষ প্রকাশ

চুড়ান্ত রায়ে জামায়াতে ইসলামীর আমির মতিউর রহমান নিজামীর ফাঁসি বহাল থাকায় সন্তোষ প্রকাশ করেছেন রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবীরা।

বৃহস্পতিবার সকালে প্রধান বিচারপতি এসকে সিনহার নেতৃত্বাধীন চার সদস্যের আপিল বেঞ্চ নিজামীর রিভিউ আবেদন খারিজ করে দেন।

এরপর সুপ্রিমকোর্টে এক ব্রিফিংয়ে রাষ্ট্রপক্ষের প্রধান আইনজীবী অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম বলেন, আল বদর নেতা নিজামীর ফাঁসি বহাল রাখায় সমগ্র জাতি সন্তুষ্ট।

তিনি বলেন, ‘বহুল প্রত্যাশিত এই রায়ে আমাদের প্রত্যাশা পূরণ হয়েছে। নিজামীকে চরম দণ্ড দেয়া হয়েছে। এতে দীর্ঘদিন পরে হলেও আইনের শাসন প্রতিষ্ঠিত হয়েছে।’

নিজামী চাইলে রাষ্ট্রপতির কাছে প্রাণভিক্ষা চাইতে পারবেন বলেও জানান অ্যাটর্নি জেনারেল।

তিনি আরও বলেন, ‘নিজামী আল বদর নেতা ছিলেন। তার উসকানিতেই একাত্তরে আল বদর বাহিনী এদেশের বুদ্ধিজীবীদের হত্যা করে। এই রায়ের পর শহীদ বুদ্ধিজীবীদের আত্মা শান্তি পাবে। তাদের পরিবারের সদস্যরাও ন্যায়বিচার পেল।’

এক প্রশ্নের জবাবে মাহবুবে আলম বলেন, ‘প্রাণভিক্ষা ছাড়া নিজামীর সামনে আর কোনো আইনি প্রক্রিয়া খোলা নেই। আদালত তাদের রায়ের কপি কারাগারে পাঠিয়ে দেবে। এরপর সরকার সিদ্ধান্ত দিলে কারা কর্তৃপক্ষ নিজামীর ফাঁসির দণ্ড কার্যকরে পরের পদক্ষেপ নেবে।’

তিনি জানান, এর আগের তিনটি চূড়ান্ত রায়ের পর সংক্ষিপ্ত আদেশ চেয়ে আবেদন করেছিলাম, আদালত তা না দিয়ে পূর্ণাঙ্গ রায়ের কপি কারাগারে পাঠিয়েছে। এজন্য এবার আবেদন করিনি। আশা করছি, খুব শিগগিরই পূর্ণাঙ্গ রায়ের কপি আদালত জেল কর্তৃপক্ষকে দেবে।’

এদিকে রায়ের পরপরই প্রতিক্রিয়ায় আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালে রাষ্ট্রপক্ষের চিফ প্রসিকিউটর গোলাম আরিফ টিপু বলেন, সর্বোচ্চ আদালতের এই রায় গণমানুষের স্বপ্ন। এই রায়ে দেশ ন্যায়বিচার প্রতিষ্ঠার ক্ষেত্রে আরেক ধাপ এগোল।

এছাড়া রাষ্ট্রপক্ষের প্রসিকিউটর ব্যারিস্টার তুরিন আফরোজ সাংবাদিকদের কাছে তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় নিজামীর ফাঁসি বহাল থাকায় সন্তোষ প্রকাশ করেন।

তিনি বলেন, ‘জাতি আজ খুশি হয়েছে। চূড়ান্ত বিচারিক প্রক্রিয়া শেষে নিজামীর ফাঁসি বহাল রয়েছে। এর মধ্য দিয়ে শীর্ষস্থানীয় যুদ্ধাপরাধীদের বিচারের একটি প্রক্রিয়া শেষ হল।’