ব্রেকিং নিউজ

দুপুর ২:৫২ ঢাকা, বুধবার  ১৯শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ ইং

হাসানুল হক ইনু
তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু

নারীরা প্রতিদিনই হয়রানির শিকার হন : তথ্যমন্ত্রী

তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু এমপি আজ বলেছেন, সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ হচ্ছে নারীরা দৈনন্দিন জীবনে বৈষম্যের মুখোমুখি হচ্ছেন। তিনি সুনির্দিষ্টভাবে ধর্মান্ধ, জঙ্গী, যুদ্ধাপরাধী এবং কুসংস্কারের কথা উল্লেখ করেন।

মঙ্গলবার জাতীয় প্রেসক্লাবে নারী সাংবাদিক কেন্দ্রের ষোড়শ প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

নারী সাংবাদিক কেন্দ্রের সভাপতি নাসিমুন আরা হকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে শুভেচ্ছা বক্তব্য দেন জাতীয় প্রেসক্লাবের সভাপতি মুহাম্মদ শফিকুর রহমান ।

পুরুষতান্ত্রিক সমাজে নারীরা প্রতিদিনই বিভিন্ন ধরনের হয়রানির শিকার হন উল্লেখ করে তথ্যমন্ত্রী বলেন, নারীদের অবশ্যই এই চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করতে হবে।

মহান মুক্তিযুদ্ধে নারীদের গৌরবময় ভূমিকার কথা উল্লেখ করে হাসানুল হক ইনু বলেন, তাদেরকে তিনটি যুদ্ধ করতে হয়েছে, প্রথমত দেশকে মুক্ত করা, দ্বিতীয়ত নিজেদের জীবন রক্ষা করা এবং তৃতীয়ত তাদের সম্মান রক্ষা করা।

অনুষ্ঠানের দর্শক-শ্রোতাদের সাধুবাদ জানিয়ে তিনি বলেন, পুরুষ রাজাকার থাকলেও নারী রাজাকার ছিল না।

তিনি বলেন, নারীর ক্ষমতায়নের লক্ষ্যে সংগ্রাম অব্যহত রাখতে হবে এবং নারীদেরকে অবশ্যই মেধা দিয়ে তাদের লক্ষ্য অর্জন করতে হবে, বাহ্যিক সৌন্দর্য দিয়ে নয়।

তিনি নারীকে বাণিজ্যিকভাবে ব্যবহারের জন্য বিজ্ঞাপনী সংস্থাগুলোর সমালোচনা করে বলেন, পণ্যের প্রচারের জন্য নারীদের বেশি উপস্থাপন করা হচ্ছে।

তিনি বলেন, ‘এটি একটি অনুজ্জল বিষয়, যার প্রতি যথাযথভাবে উপলব্ধি করা উচিত’।

তিনি বলেন, বাংলাদেশ প্রেস ইনস্টিটিউটের (পিআইবি) মাধ্যমে সরকার এ বিষয়ে সহযোগিতা করবে।

তথ্যমন্ত্রী মহান মুক্তিযুদ্ধের সময় নারী নির্যাতনকারিদের আশ্রয় দেওয়ার জন্য খালেদা জিয়াকে বর্জন করতে নারীদের প্রতি আহবান জানান।

অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ নারী সাংবাদিক কেন্দ্রের সহ-সভাপতি দিল মনোয়ারা মনু, সাধারণ সম্পাদক পারভীন সুলতানা ঝুমা ও কোষাধ্যক্ষ আখতার জাহান মালিক।

অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ নারী সাংবাদিক কেন্দ্রের সদস্যরা ছাড়াও বিভিন্ন সহযোগি সংগঠনের সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।