Press "Enter" to skip to content

নারীদেরও মানসিকতার পরিবর্তন জরুরি : চুমকি

মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী মেহের আফরোজ চুমকি বলেছেন, পুরুষের পাশাপাশি নারীদেরও মানসিকতার পরিবর্তন জরুরি।

তিনি বলেন, নারী অনেক সময় স্বেচ্ছায় পুরুষের প্রতি নির্ভরশীল হতে চায়। নির্ভরশীল হয়ে কখনও সমান অধিকার পাওয়া যায় না।

তিনি আজ সকালে রাজধানীর সিরডাপ মিলনায়তনে মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের আয়োজনে ‘আন্তর্জাতিক নারী নির্যাতন প্রতিরোধ পক্ষ’ উপলক্ষে ১৬ দিনব্যাপী কার্যক্রমের উদ্বোধনকালে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এ কথা বলেন।

মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব নাছিমা বেগমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে জাতিসংঘের বাংলাদেশ আবাসিক প্রতিনিধি মিয়া সেপ্পো, জাতিসংঘ জনসংখ্যা তহবিলের বাংলাদেশ প্রতিনিধি লরি কাটো, ইউএন উইমেনের বাংলাদেশ প্রতিনিধি শোকো ইশিকাওয়া, যুক্তরাষ্ট্র দূতাবাসের কনসাল জেনারেল শরণ উইলার প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন নারী নির্যাতন প্রতিরোধকল্পে মাল্টিসেক্টোরাল প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালক ড. আবুল হোসেন।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, নারী নির্যাতন প্রতিরোধের বিষয়ে আন্তর্জাতিক যত সনদ আছে বাংলাদেশ তা বাস্তবায়নে অঙ্গীকারাবদ্ধ।

তিনি বলেন, প্রযুক্তির প্রসারের কারণে নির্যাতনের ধরনও পাল্টেছে। তিনি মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের হেল্প লাইন (১০৯) বাংলাদেশের প্রতিটি নারীর কাছে পৌঁছাতে কর্মকর্তাদের নির্দেশ দেন।

১৯৯৯ সালে জাতিসংঘ ২৫ নভেম্বরকে আন্তর্জাতিক নারী নির্যাতন প্রতিরোধ দিবস হিসেবে ঘোষণা করে এবং ২৫ নভেম্বর থেকে ১০ ডিসেম্বর পর্যন্ত নারীর প্রতি সহিংসতা রোধে ১৬ দিনের কর্মসূচি পালন করে।

এই কর্মসূচির প্রতিপাদ্য হল : অরেঞ্জ দ্য ওয়ার্ল্ড : লিভ নো ওয়ান বিহাইন্ড। বাংলাদেশের প্রতিপাদ্য- নারী আজ অগ্রসর-চায় সমতা জীবনভর।

Mission News Theme by Compete Themes.