অপহৃত হওয়ার তিন দিন পর শীতলক্ষ্যা নদী থেকে লাশ উদ্ধার করা হয়।

নারায়ণগঞ্জে ৭ খুনের মামলার পরবর্তী শুনানি ৩১ অক্টোবর

নারায়ণগঞ্জে ৭ খুনের দুটি মামলার পরবর্তী শুনানির তারিখ ৩১ অক্টোবর নির্ধারণ করেছে আদালত।

এ মামলায় নূর হোসেন ও র‌্যাবের সাবেক তিন কর্মকর্তাসহ ৪ জনের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য প্রমাণে আনীত অভিযোগ আজ আদালতে পড়ে শুনানো হয়েছে।

আসামীরা এ সময় নিজেদেরকে নির্দোষ দাবি করে, তবে তারা কোন সাফাই সাক্ষি দিতে অস্বীকার করেন।

সোমবার সকাল ১০টা থেকে দুপুর একটা পর্যন্ত জেলা ও দায়রা জজ সৈয়দ এনায়েত হোসেনের পক্ষে পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) এডভোকেট ওয়াজেদ আলী খোকন আসামীদের অভিযোগ পড়ে শোনান। এডভোকেট ওয়াজেদ আলী খোকন জানান, ফৌজদারী কার্য বিধির ৩৪২ ধারায় আসামীদের বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ পড়ে শোনানো হয়েছে। আসামীরা নিজেদের নির্দোষ দাবি করলেও কোন সাফাই সাক্ষি দিবেন না বলে জানিয়েছেন।

এর আগে সকালে কড়া নিরাপত্তায় মামলার প্রধান আসামী নূর হোসেন, র‌্যাবের সাবেক তিন কর্মকর্তা তারেক সাঈদ মোহাম্মদ, আরিফ হোসেন ও এম এম রানাসহ ২৩ আসামীকে আদালতে হাজির করা হয়।

২০১৪ সালের ২৭ এপ্রিল ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ লিংক রোডের ফতুল্লার লামাপাড়া এলাকা থেকে এনসিসি’র প্যানেল মেয়র নজরুল ইসলাম ও সিনিয়র আইনজীবি চন্দন সরকারসহ ৭ জন অপহৃত হয়। তিন দিন পর শীতলক্ষ্যা নদী থেকে ছয়জনের ও পরের দিন আরো একজনের লাশ উদ্ধার করা হয়।