Press "Enter" to skip to content

নারায়ণগঞ্জে স্ত্রীকে পিটিয়ে হত্যায় স্বামীর মৃত্যুদণ্ড

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে যৌতুকের দাবিতে গৃহবধূ সখিনা খাতুনকে পিটিয়ে হত্যা মামলায় স্বামী বাবুল মিয়াকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে এক লাখ টাকা অর্থদণ্ডও করা হয়েছে।

মঙ্গলবার দুপুর ১২টার দিকে নারায়ণগঞ্জ জেলা নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক মো. জুয়েল রানা এ রায় এ ঘোষণা করেন। রায় ঘোষণার সময় দণ্ডিত বাবুল মিয়া (৩৫) আদালতে অনুপস্থিত ছিলেন।

আদালতের স্পেশাল পিপি রকিব উদ্দিন বলেন, ২০০২ সালে রূপগঞ্জের নয়াপাড়া গ্রামের তমিজ উদ্দিনের মেয়ে সখিনা খাতুনের (২৫) সঙ্গে ফরিদপুরের মধুখালী গ্রামের গুন্দারদিয়া গ্রামের বাতেন মিয়ার ছেলে বাবুল মিয়ার (৩৫) বিয়ে হয়।

বিয়ের পর থেকে স্বামী ৫০ হাজার টাকা যৌতুকের দাবিতে প্রায় সময় মারধরসহ নানাভাবে নির্যাতন চালাতো সখিনার ওপর।

২০০৪ সালের ১৫ মে রূপগঞ্জের নয়াপাড়া ফতেপাগলীর ভাড়া বাড়িতে সখিনাকে দাবিকৃত যৌতুকের জন্য ব্যাপক মারধর করেন বাবুল। এসময় আশপাশের লোকজন এসে সখিনাকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ৫ দিন পর ২০ মে সখিনা মারা যায়।

এ ঘটনায় সখিনার বাবার দায়ের করেন। এ মামলায় আদালত ১৪ জন সাক্ষীর মধ্যে ৭ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে আজ রায় ঘোষণা করেছেন।

Mission News Theme by Compete Themes.