Sheersha Media

ব্রেকিং নিউজ

সকাল ১০:২৯ ঢাকা, রবিবার  ১৮ই নভেম্বর ২০১৮ ইং

কাজী রকিবউদ্দিন আহমেদ
প্রধান নির্বাচন কমিশনার কাজী রকিবউদ্দিন আহমেদ, ফাইল ফটো

না’গঞ্জের পরিস্থিতি ভালো, সেনা মোতায়েনের দরকার নেই : সিইসি

প্রধান নির্বাচন কমিশনার কাজী রকিবউদ্দিন আহমেদ বলেছেন, নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন (নাসিক) নির্বাচনে সেনাবাহিনী মোতায়েনের প্রয়োজন নেই।

শনিবার জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের (এনইসি) সম্মেলন কক্ষে নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন এবং জেলা পরিষদ নির্বাচন নিয়ে আইনশৃংখলা বৈঠক শেষে সংবাদ ব্রিফিংয়ে তিনি একথা বলেন।

বেলা ১১টার দিকে বৈঠক শুরু হয়ে শেষ হয় দুপুর ১টার দিকে। বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন, চার নির্বাচন কমিশনার, নির্বাচন কমিশন (ইসি) সচিব,স্বরাষ্ট্রসচিব, আইজিপি, র‌্যাব ডিজি, এনএসআই ডিজি, এসবি ডিজি, আনসার ডিজিসহ সারা দেশের পুলিশ ও প্রশাসনের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

আগামী ২২ ডিসেম্বর নারায়নগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের আগে আইনশৃংখলা বাহিনীর সঙ্গে ইসির এটাই শেষ বৈঠক।

বৈঠকে ২৮ ডিসেম্বর জেলা পরিষদ নির্বাচন সুষ্ঠু করার জন্য  আইনশৃংখলা বাহিনীর  ভূমিকা নিয়ে আলোচন হয়।

বৈঠক শেষে ব্রিফিংয়ে সিইসি বলেন, ‘আইনশৃংখলা বাহিনীর সদস্যদের সঙ্গে কথা হয়েছে। তারা জানিয়েছেন, নারায়ণগঞ্জের পরিস্থিতি স্বাভাবিক অবস্থার চেয়েও ভালো। তাই সেনা মোতায়েনের দরকার নেই।’

তিনি জানান, নারায়ণগঞ্জ সিটি নির্বাচনের সময় এগিয়ে আসার সঙ্গে সঙ্গে এ পরিস্থিতির আরও উন্নতি হবে।

সিইসি  বলেন, নারায়ণগঞ্জে বর্হিরাগতরা যাতে ঢুকতে না পারে সে ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। যারা সন্ত্রাসী, অস্ত্রধারী, যারা নির্বাচনে সমস্যা করতে চায় তাদের বিরুদ্ধে শুরু থেকে গ্রেফতার অভিযান আছে, এটি অব্যাহত থাকবে। ২৭ জন ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োগ করা হয়েছে। তারা আইনশৃংখলা রক্ষার পাশাপাশি প্রার্থীর আচরণবিধি লংঘন পর্যবেক্ষণ করছে।

তিনি বলেন, জেলা পরিষদ নির্বাচন প্রথমবারের মতো হচ্ছে, তাই আমরা এ বিষয়ে সতর্ক আছি। প্রতিটি জেলার পরিস্থিতি অনুযায়ী আইনশৃংখলা রক্ষা বাহিনীকে নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে রকিবউদ্দিন বলেন, নারায়ণগঞ্জে কেউ আচরণবিধি লংঘন করে থাকলে তার বিরুদ্ধে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়া হবে, সে যেই হোক না কেন।

তিনি বলেন, ভোট কেন্দ্রে আইনশৃংখলা বাহিনী কড়া নজরদারিতে থাকবে। ভোটাররা যাতে নির্বিঘ্নে ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে পারেন, সে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভি। আর বিএনপি থেকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন অ্যাডভোকেট সাখাওয়াত হোসেন খান।

উল্লেখ্য, তফসিল অনুযায়ী নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের (নাসিক) নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে আগামী ২২ ডিসেম্বর। তফসিল ঘোষণার পর থেকে সেনা মোতায়েনের দাবি জানিয়ে আসছিল বিএনপি।