Press "Enter" to skip to content

নতুন ‘কারা আইন’ প্রণয়ন হবে : আইনমন্ত্রী

বিদ্যমান কারা আইন সংশোধন করে সরকার নতুন কারা আইন প্রণয়ন করছে। আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী আনিসুল হক আজ নতুন কারা আইন প্রণয়ন উপলক্ষে মন্ত্রণালয়ে অনুষ্ঠিত এক আন্তঃমন্ত্রণালয় সভায় সভাপতির বক্তৃতায় এ কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, ‘এ আইন প্রণয়নের মূল লক্ষ্য হবে কারাগারগুলোকে সংশোধনাগার ও পুনর্বাসন কেন্দ্রে রূপান্তর করা। এক্ষেত্রে প্রস্তাবিত আইনটি কারা আইনের পরিবর্তে কারেকশনাল ফেসিলিটিজ এন্ড রিহ্যাবিলাইটেশন অ্যাক্ট ফর প্রিজনার্স (কারাবন্দী সংশোধনমূলক পরিসেবা ও পুনর্বাসন আইন) নামে অভিহিত হতে পারে।’

আইনের খসড়া প্রণয়নের জন্য ইতোমধ্যে লেজিসলেটিভ ও সংসদ বিভাগের সিনিয়র সচিব মোহাম্মদ শহিদুল হকের নেতৃত্বে কমিটি গঠন করা হয়েছে। কমিটির অন্য সদস্যরা হলেন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সুরক্ষা ও সেবা বিভাগের সচিব ফরিদ উদ্দিন চৌধুরী ও কারা মহাপরিদর্শক। এছাড়া আইন মন্ত্রণালয়, পুলিশ বিভাগ ও জিআইজেড প্রতিনিধিরা এ কমিটির সদস্য হবেন। এজন্য মূল কমিটি ছাড়াও দুটি উপ-কমিটি গঠন করা হয়েছে।

সভায় আইনমন্ত্রী আগামী ৩১ ডিসেম্বরের মধ্যে নতুন কারা আইনের খসড়া প্রণয়নের জন্য কমিটিকে নির্দেশ দেন। তিনি বলেন, ২০১৮ সালের জানুয়ারি মাসেই এ আইনের খসড়া মন্ত্রিসভায় উপস্থাপন করা হবে। সেই লক্ষ্যে কমিটিকে কাজ করতে হবে।

সভায় আইন মন্ত্রণালয়ের লেজিসলেটিভ ও সংসদ বিভাগের সিনিয়র সচিব মোহাম্মদ শহিদুল হক, আইন ও বিচার বিভাগের সচিব আবু সালেহ শেখ মো. জহিরুল হক, অতিরিক্ত সচিব ও জেআরসিপি প্রকল্প পরিচালক মো. মোস্তাফিজুর রহমান, লেজিসলেটিভ ও সংসদ বিষয়ক বিভাগের অতিরিক্ত সচিব নাসরিন বেগম ছাড়াও স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়, কারা অধিদপ্তর, পুলিশ বিভাগ এবং জিআইজেডের রুল অব ‘ল’ এর প্রধান প্রমিতা সেনগুপ্তসহ অন্যরা উপস্থিত ছিলেন।

Mission News Theme by Compete Themes.