ব্রেকিং নিউজ

সকাল ৬:৪০ ঢাকা, রবিবার  ২২শে জুলাই ২০১৮ ইং

শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু

নকল-ভেজাল প্রতিরোধে আগে উৎপাদকদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা

শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু বলেছেন, শুধু ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী নয়, নকল ও ভেজাল প্রতিরোধে অসাধু উৎপাদকদের বিরুদ্ধে সবার আগে ব্যবস্থা নিতে হবে।

তিনি আজ বিশ্ব মেট্রোলজি দিবস-২০১৭ উপলক্ষে বাংলাদেশ স্ট্যান্ডার্ডস এন্ড টেস্টিং ইন্সটিটিউশন (বিএসটিআই) আয়োজিত ‘পরিমাপ পরিবহনের নিয়ন্ত্রক শীর্ষক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন।

এ ব্যাপারে ব্যবস্থা নিতে বিএসটিআইএর কর্মকর্তাদের নির্দেশ দিয়ে শিল্পমন্ত্রী বলেন, পণ্যের নকল ও ভেজাল প্রতিরোধ করতে হলে, যেসব কারখানায় নকল ও ভেজাল পণ্য উৎপাদন হয়, সেখানেই প্রথমে অভিযান চালাতে হবে। এ লক্ষ্যে তিনি বিএসটিআইতে কর্মরত সবাইকে সর্বোচ্চ নৈতিকতা বজায় রেখে পেশাদারিত্বের সাথে অর্পিত দায়িত্ব পালনের পরামর্শ দেন।

রাজধানীর তেজগাঁওয়ে বিএসটিআই মিলনায়তনে আজ এ সভা অনুষ্ঠিত হয়। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল এমপি এতে বিশেষ অতিথি ছিলেন।

বিএসটিআই’র মহাপরিচালক মোঃ সাইফুল হাসিবের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে শিল্প মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব মোঃ মোশাররফ হোসেন ভুঁইয়া এনডিসি, বিএসটিআই এর পরিচালক আসাদুজ্জামান বক্তব্য রাখেন।

শিল্পমন্ত্রী পণ্য ও সেবার ক্ষেত্রে পরিমাপের গুরুত্ব তুলে ধরে বলেন, যে কোনো পণ্য উৎপাদন কিংবা উৎপাদন প্রক্রিয়ায় ব্যবহৃত যন্ত্রপাতি তৈরির ক্ষেত্রে নির্দিষ্ট পরিমাপের কাঁচামাল ব্যবহার করা জরুরি। এর ব্যত্যয় হলে, উৎপাদিত পণ্য জননিরাপত্তার জন্য হুমকির কারণ হতে পারে। তিনি অবকাঠামো নির্মাণ, স্বাস্থ্য পরীক্ষা, পণ্য ওজন, পরিবহন তৈরিসহ সকল ক্ষেত্রে সঠিক পরিমাপ অনুসরণের তাগিদ দেন।

আমির হোসেন আমু বলেন, দেশের সাধারণ জনগণের পাশাপাশি, বিএসটিআই এর কর্মকর্তা-কর্মচারি এবং তাদের আত্মীয়-স্বজনরাও পণ্যের ক্রেতা ও ভোক্তা। যে কেউ নকল ও ভেজাল পণ্য ব্যবহার করে মারাত্মক ক্ষতির শিকার হতে পারেন। বিষয়টি বিবেচনায় রেখে নকল ও ভেজাল পণ্য উৎপাদন ও বিপণন প্রতিরোধে তিনি সর্বোচ্চ সততা ও সাহসিকতার সাথে অর্পিত দায়িত্ব পালনের জন্য সংশ্লিষ্ট সকলের প্রতি আহবান জানান।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, জননিরাপত্তার জন্য পরিবহনখাতে পরিমাপ নিয়ন্ত্রণে কার্যকর উদ্যোগ নেয়া জরুরি। তৈরি পোশাক শিল্পের পর ওষুধ শিল্পখাতে মান নিয়ন্ত্রণের ফলে বিশ্ববাজারে বাংলাদেশি ওষুধ গুরুত্বপূর্ণ স্থান দখলে সক্ষম হয়েছে। পরিবহনখাতে মান নিয়ন্ত্রণ করে দেশে রপ্তানিমুখী নতুন শিল্পখাত গড়ে তোলা সম্ভব। তিনি জনগণের সুরক্ষার কথা মাথায় রেখে মানসম্মত পণ্য উৎপাদনের জন্য ব্যবসায়ীদের প্রতি আহবান জানান।