ব্রেকিং নিউজ

রাত ১১:০৭ ঢাকা, মঙ্গলবার  ২৫শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ ইং

ধূমপানে স্কিৎজোফ্রেনিয়া রোগ

বিজ্ঞানীরা নতুন এক গবেষণায় ধূমপানের সঙ্গে স্কিৎজোফ্রেনিয়া রোগের যোগাযোগ আবিষ্কার করেছেন।
লন্ডনে কিংস কলেজের একদল গবেষক ষাটটির ওপর গবেষণার ফলাফল বিশ্লেষণ করে দেখেছেন ধূমপায়ীদের এই স্কিৎজোফ্রেনিয়া রোগ বা ‘দ্বৈতসত্ত্বা’-র সমস্যায় ভোগার প্রবণতা রয়েছে।
তারা গবেষণায় দেখেছেন সিগারেটের নিকোটিন মস্তিষ্কের গঠন বদলে দিতে পারে।
বিজ্ঞানীরা অনেকদিন ধরেই বলে আসছেন ‘সাইকোসিস্’ বা যে মানসিক বৈকল্যের কারণে মানুষ বাস্তবতার সঙ্গে সম্পর্ক হারিয়ে ফেলে তার সঙ্গে ধূমপানের যোগাযোগ রয়েছে।
কিন্তু এতদিন ধূমপানকে এর কারণ হিসাবে দেখা হতো না বরং মনে করা হতো এই মানসিক অবস্থা রোগীকে ধূমপানে উদ্বুদ্ধ করছে।
অর্থাৎ সাইকোসিসের রোগী যারা সচরাচর কন্ঠ শুনতে পান বা অলীক কিছু দেখতে পান তারা মানসিক এই চাপ কমাতে নিজেরাই ধূমপানের পথ বেছে নেন।
কিংস কলেজের গবেষকরা এখন বলছে স্কিৎজোফ্রেনিয়া-র সঙ্গে ধূমপানের প্রত্যক্ষ যোগাযোগ তারা পেয়েছেন এবং তারা বলছেন ধূমপান অল্প বয়স থেকে এই মানসিক অবস্থার দিকে কাউকে ঠেলে দিতে পারে।
তবে তারা বলেছেন যদিও এর পক্ষে তারা জোরালো তথ্যপ্রমাণ পেয়েছেন কিন্তু এ বিষয়ে আরও গবেষণার প্রয়োজন রয়েছে।
তারা বলছেন ধূমপান করলেই যে স্কিৎজোফ্রেনিয়া হবে এমন সিদ্ধান্তে পৌঁছনর কোনো কারণ নেই, তবে স্কিৎজোফ্রেনিয়া-র ঝুঁকি রয়েছে এমন মানুষের ক্ষেত্রে ধূমপান এই ঝুঁকি যে বাড়িয়ে দেয় গবেষণায় এমন তথ্য তারা পেয়েছেন।