Sheersha Media

ব্রেকিং নিউজ

বিকাল ৫:১৯ ঢাকা, শুক্রবার  ১৬ই নভেম্বর ২০১৮ ইং

দেশের কোনো শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান আন্তর্জাতিক র‌্যাংকিংয়ে নেই!!

আন্তর্জাতিক কোনো র‌্যাংকিংয়ে আর খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না বাংলাদেশের কোনো উচ্চ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের নাম। সর্বশেষ গত ২০০০ সালে একটি র‌্যাংকিংয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের নাম ওঠে। এরপর আর কোনো তালিকায় স্থান পায়নি দেশের কোনো পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের নাম।  এমনকি সারা বিশ্বের এক হাজার সেরা বিশ্ববিদ্যালয়ের তালিকায়ও আর খুঁজে পাওয়া যায় না বাংলাদেশের কোনো উচ্চ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের নাম।
১৯৯৯ সালে এশিয়া উইক রেটিং তালিকায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অবস্থান ছিল ৩৭, আর ২০০০ সালে ৩৪তম।  এরপর গত ১৪ বছরে আর কোনো আন্তর্জাতিক তালিকায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় বা দেশের অন্য কোনো বিশ্ববিদ্যালয়ের নাম আসেনি।
প্রতি বছর বিভিন্ন সংস্থা কখনো বিশ্বের সেরা এক শত, কখনো সেরা পাঁচ শত, সেরা সাত শত এবং সেরা এক হাজার প্রতিষ্ঠানের তালিকা প্রকাশ করে। আন্তর্জাতিক র‌্যাংকিংয়ে নিচের দিকে নামতে নামতে এখন আর সেরা এক হাজারের তালিকায়ও নাম ওঠে না ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের।
অথচ একসময় দক্ষিণ এশিয়ার মধ্যে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় অন্যতম সেরা বিশ্ববিদ্যালয়ের সুনাম অর্জন করেছিল। খ্যাতি পেয়েছিল প্রাচ্যের অক্সফোর্ড হিসেবে। আজ সেসব কেবলই স্মৃতি।

চলতি বছর সৌদি আরবের জেদ্দাভিত্তিক সংস্থা সেন্টার ফর ওয়ার্ল্ড ইউনিভার্সিটিজ র‌্যাংকিংয়ের একটি গবেষণা প্রতিবেদনে বিশ্বের সেরা এক হাজার বিশ্ববিদ্যালয়ের তালিকা প্রকাশ করা হয়। তাতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের নাম না থাকায় লজ্জায় পড়তে হয়েছে এ বিশ্ববিদ্যালয়ের বর্তমান ও সাবেক শিক্ষার্থীদের। অথচ এ তালিকায় ভারতের ১৫টি প্রতিষ্ঠানের নাম রয়েছে। গবেষণা, প্রকাশনা, শিক্ষকদের যোগ্যতা, শিক্ষাজীবন শেষে শিক্ষার্থীদের কর্মজীবনে প্রবেশে দক্ষতা, প্রতিষ্ঠানের প্রভাব এসব বিষয় বিবেচনায় নিয়ে এক হাজার সেরা বিশ্ববিদ্যালয়ের তালিকা প্রকাশ করে সংস্থাটি।

চলতি বছর অ্যাকাডেমিক র‌্যাংকিং অব ওয়ার্ল্ড ইউনিভার্সিটি বিশ্বের সেরা পাঁচ শত বিশ্ববিদ্যালয়ের তালিকা প্রকাশ করে। তাতে ভারত, পাকিস্তান, থাইল্যান্ড, ইন্দোনেশিয়া ও মালয়েশিয়ার বেশ কয়েকটি করে প্রতিষ্ঠানের নাম থাকলেও নেই বাংলাদেশের কোনো প্রতিষ্ঠানের নাম।

কিউএস ওয়ার্ল্ড ইউনিভার্সিটি র‌্যাংকিং গত বছর সেরা ২০০ বিশ্ববিদ্যালয়ের তালিকা প্রকাশ করে। তাতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অবস্থান ছিল ৭০১-এ। এরপর এ প্রতিষ্ঠান গত বছর সেরা সাত শত বিশ্ববিদ্যালয়ের আরেকটি তালিকা প্রকাশ করে । তাতেও  ঠাঁই হয়নি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের। তবে এশিয়ার সেরা তিন শত বিশ্ববিদ্যালয়ের তালিকায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অবস্থান ছিল ২৪৩ তম।
এশিয়ার সেরা তিন শত বিশ্ববিদ্যালয়ের তালিকায় চীনের ৭৫টি, তাইওয়ানের ২৯টি, ইন্দোনেশিয়া, থাইল্যান্ড, ভারতের ১১টি করে এবং পাকিস্তানের সাতটি উচ্চ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের নাম রয়েছে।
প্রকাশনা, গবেষণা, বিদেশী শিক্ষার্থীরা সংখ্যা, কী কী বিষয় পড়ানো হয়, শিক্ষক ও ছাত্রছাত্রীদের যোগ্যতা, সুনাম এ রকম ৯টি বিষয় সামনে রেখে কিউএস ওয়ার্ল্ড ইউনিভার্সিটি মান যাচাই করে তালিকা তৈরি করে।

২০০৮ সালে চীনের সাংহাইভিত্তিক জিয়াং টাও ওয়েবসাইট প্রকাশিত সেরা পাঁচ শ’ বিশ্ববিদ্যালয়ের তালিকায় নেই বাংলাদেশের কোনো প্রতিষ্ঠান।

যুক্তরাজ্যভিত্তিক টপ ওয়ার্ল্ড ইউনিভার্সিটিজ র‌্যাংকিং কর্তৃক ২০১০ সালে প্রকাশিত সেরা পাঁচ শত বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে বাংলদেশের কোনো প্রতিষ্ঠানের নাম নেই।

এ ছাড়া আরো বিভিন্ন সংস্থা বিভিন্ন দিক বিবেচনা করে তালিকা প্রকাশ করে। তবে সেসব তালিকা খুব একটা গ্রহণযোগ্য নয়। ওপরে যে কয়টি সংস্থার তালিকা উল্লেখ করা হলো সেগুলো সারা বিশ্বে বেশ স্বীকৃত।