শীর্ষ মিডিয়া

ব্রেকিং নিউজ

রাত ১:০৯ ঢাকা, রবিবার  ১৬ই ডিসেম্বর ২০১৮ ইং

দুর্নীতি দমন কমিশন
দুর্নীতি দমন কমিশন

দুর্নীতি: সাবেক এক কাস্টম কমিশনার গ্রেফতার

সাড়ে ৪ কোটি টাকা পাচারের অভিযোগে কাস্টমস, এক্সাইজ ও ভ্যাট আপিল ট্রাইব্যুনালের সদস্য নূরুল ইসলামকে গ্রেফতার করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

রোববার রাজধানীর সেগুনবাগিচা এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

দুদকের উপ-পরিচালক ও জনসংযোগ কর্মকর্তা প্রণব কুমার ভট্টাচার্য্য গণমাধ্যমকে জানান, মংলা কাস্টম হাউজে কমিশনার হিসেবে কর্মরত ছিলেন নূরুল ইসলাম। ২০০৯ সালের ২৯ সেপ্টেম্বর ক্ষমতার অপব্যবহার, প্রতারণা ও মেসার্স মিডিয়া এন্টারপ্রাইজের সঙ্গে যোগসাজশ করে পূবালী ব্যাংক খুলনা শাখায় একটি এলসি করা হয়। সে অনুযায়ী ওই বছরের ২৩ নভেম্বর ৪,৫০০ দশমিক ৫৬ মার্কিন ডলার মূল্যের সাবান ও বডি স্প্রে জাতীয় নিষিদ্ধ প্রসাধনী দুবাই থেকে আমদানি করা হয়।

এর আড়ালে ২৪ হাজার ২৪০ বোতল অনুমোদনহীন বিভিন্ন ধরনের বিদেশী মদ, ইলেকট্রনিক সামগ্রী ও দুই কন্টেইনার অন্যান্য পণ্য মংলা বন্দর দিয়ে আমাদানি করা হয়।

ঘোষণা বহির্ভূত এসব মামলামাল বাবদ সাড়ে চার কোটি টাকা পাচারের অভিযোগে ২০১১ সালের ৪ জুলাই মংলা থানায় নূরুল ইসলামসহ পাঁচজনকে আসামি করে একটি মামলা দায়ের করা হয়।

এই মামলার পেক্ষিতে দুদক উপ-পরিচালক জালাল উদ্দিন আহাম্মদ নরুল ইসলামকে গ্রেফতার করেন।

এদিকে ভুয়া প্রতিষ্ঠানের নামে এক কোটি ১৩ লাখ টাকা ঋণ বিতরণ দেখিয়ে আত্মসাতের অভিযোগে অগ্রণী ব্যাংকের রাজশাহী রাজুবাঘা শাখার সাবেক ম্যানেজার রফিকুল ইসলামকে গ্রেফতার করেছে দুদক।

রোববার রাজশাহী থেকে তাকে গ্রেফতার করে দুদক সহকারী পরিচালক আলমগীর হোসেন। তার বিরুদ্ধে গত ২০ জুলাই বাঘা থানায় মামলা করা হয়েছিল।