ব্রেকিং নিউজ

বিকাল ৩:৫২ ঢাকা, রবিবার  ২৩শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ ইং

আইজিপি শহীদুল হক
পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) একেএম শহীদুল হক, ফাইল ফটো

দুই জঙ্গির মৃত্যুতে গুলশান হামলার তদন্ত বাধাগ্রস্ত হবে না : আইজিপি

বাংলাদেশ পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) একেএম শহীদুল হক বলেছেন, জঙ্গি মারজান ও সাদ্দামের মৃত্যুতে গুলশান হামলার ঘটনা তদন্তে কোনো প্রতিবন্ধকতা আসবে না।’

স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসা জঙ্গিদের জন্য পুনর্বাসন কেন্দ্র স্থাপনের ওপর গুরুত্বারোপ করে আইজিপি আজ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্রিমিনোলজি বিভাগ আয়োজিত “টেররিজম ইন দি ওয়েভ অব ইসলামিক স্টেট শীর্ষক আন্তর্জাতিক সম্মেলনের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতা রাখছিলেন।

বিশ্ববিদ্যালয়ের নবাব নওয়াব আলী চৌধুরী সিনেট ভবনে অনুষ্ঠিত দুই দিনব্যাপী এ সম্মেলনে বাংলাদেশ, ভারত, নেদারল্যান্ড ও জার্মানীসহ বিভিন্ন দেশের প্রতিনিধিরা অংশগ্রহণ করেন।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন বাংলাদেশে নিযুক্ত নেদারল্যান্ডসের রাষ্ট্রদূত লিওনি মার্গারিটা কুলোনার, ক্রিমিনোলজি বিভাগের চেয়ারপার্সন ড. জিয়া রহমান সম্মেলনে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন।

এক প্রশ্নের জবাবে আইজিপি বলেন, দুই জঙ্গির মৃত্যুতে গুলশান হামলার তদন্তে কোনো বাধা আসবে না। জঙ্গিদের ব্যপারে সরকারের কাছে সব ধরনের তথ্য রয়েছে। গুলশান হামলায় জড়িত বাকিদের গ্রেফতারে আরো জোরালো অভিযান পরিচালনা করা হবে।
গুলশান হামলায় অর্থায়নে দেশ বিদেশের বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান জড়িত বলে তিনি উল্লেখ করেন।

আইজিপি বলেন, সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ শুধু বাংলাদেশের একক সমস্যা নয়। এটি একটি বৈশিক সমস্যা। বর্তমান সময়ে সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ মোকাবিলা বিশ্বব্যাপী পুলিশ ও আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর জন্য চ্যালেঞ্জ হয়ে দাঁড়িয়েছে। এ চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় জাতীয়, আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক সমন্বয় ও সহযোগিতার প্রয়োজন রয়েছে।

তিনি বলেন, জঙ্গি ও সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে বর্তমান সরকারের অবস্থান ‘জিরো টলারেন্স’। সাম্প্রতিক সময়ে জঙ্গিবাদ দমনে বাংলাদেশ পুলিশ প্রশংসনীয় ভূমিকা রাখতে সক্ষম হয়েছে।

আইজিপি জঙ্গি ও সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে জনমত গঠনের লক্ষ্যে ইসলামের সঠিক ব্যাখ্যা জনসম্মুখে তুলে ধরার জন্য ইসলামী চিন্তাবিদ, আলেম, ইমাম ও মাদ্রাসা শিক্ষকদের প্রতি অনুরোধ জানান।

তিনি জঙ্গিদের সম্পর্কে তথ্য দিয়ে পুলিশকে সহযোগিতা করা এবং জঙ্গিবিরোধী জনমত গড়ে তোলার জন্য দেশের সকল শ্রেণি-পেশার মানুষের প্রতি আহবান জানান।

অনুষ্ঠানে নেদারল্যান্ডসের রাষ্ট্রদূত বাংলাদেশের সন্ত্রাস ও জঙ্গি বিরোধী কার্যক্রমের প্রশংসা করেন। তিনি বলেন, তার দেশ নেদারল্যান্ডসও সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে কঠোর অবস্থান গ্রহণ করেছে।

মূল প্রবন্ধে ড. জিয়া রহমান বাংলাদেশে জঙ্গিবাদের উত্থান, দারিদ্র ও ধর্মীয় উগ্রবাদ এবং সাম্প্রতিক সময়ে গুলশানে হলি আর্টিজান বেকারিসহ বিভিন্ন স্থানে জঙ্গি হামলা, বিশ্বায়ন, প্রযুক্তি, নতুন প্রজন্ম এবং ইসলামী জঙ্গিবাদের বিভিন্ন দিক তুলে ধরেন।
র‌্যাবের মহাপরিচালক বেনজীর আহমেদ আগামীকাল রোববার সম্মেলনের সমাপনী অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করবেন ।