Sheersha Media

ব্রেকিং নিউজ

সকাল ১০:২৭ ঢাকা, বৃহস্পতিবার  ১৫ই নভেম্বর ২০১৮ ইং

দিল্লিতে তরুণীকে ধর্ষণ করল ট্যাক্সিচালক

ভারতের রাজধানীতে দিল্লিতে ফের ধর্ষণের শিকার হয়েছেন এক তরুণী। শুক্রবার রাতে তিনি এক ট্যাক্সিচালকের হাতে ধর্ষিতা হন । ঘটনার পর থেকে নিখোঁজ রয়েছে ওই চালক। সে দিল্লির ‘উবের’ নামক এক ট্যাক্সি কোম্পানির গাড়ি চালাত।

এ ঘটনায় শনিবার সন্ধ্যায় তার বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছে পুলিশ। তবে মামলায় জনপ্রিয় ওই কোম্পানির নাম উল্লেখ করা হয়নি বলে এনডিটিভি জানিয়েছে।

২৭ বছরের ওই নারী এক বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে ফিনান্সিয়াল এক্সিকিউটিভ হিসেবে কাজ করতেন। শুক্রবার রাতে বন্ধুদের সঙ্গে ডিনার সারার পর গুরগাও থেকে একটি ট্যাক্সিক্যাব ভাড়া করেন। ট্যাক্সিতে ওঠার পর তিনি তন্দ্রাচ্ছন্ন হয়ে পড়েন। কিছুক্ষণ পর জেগে দেখেন একটি নির্জন স্থানে দাঁড়িয়ে আছে ট্যাক্সি। তখন ট্যাক্সিতেই তাকে উপর্যুপরি ধর্ষণ করে চালক।

তিনি পুলিশকে আরো জানিয়েছে, ধর্ষণ শেষে চালক তাকে উত্তর দিল্লিতে তার বাড়ির কাছে নামিয়ে দেয়। তবে এ ঘটনা কারো কাছে প্রকাশ করলে তাকে হত্যা করা হবে বলেও হুমকি দেয় সে। তবে চালক স্থান ত্যাগ করার আগেই গাড়ির নাম্বার প্লেটের ছবি তুলে নেন ওই তরুণী। শুক্রবার রাতেই থানায় ফোন করে করে তিনি ধর্ষণের অভিযোগ করেন। মেডিকেল পরীক্ষা শেষে ওই তরুণীর ধর্ষণের বিষয়ে নিশ্চিত হয় পুলিশ। শনিবার রাতে স্থানীয় থানায় এ ঘটনায়েএকটি এফআইআর দাখিল করা হয়েছে বলে জানা গেছে। তবে এতে ক্যাব কোম্পানিটির নাম উল্লেখ করেনি পুলিশ।এদিকে ট্যাক্সি কোম্পানি উবের এনডিটিভিকে জানিয়েছে, তারা এই ঘটনাকে গুরুত্বের সঙ্গে নিয়েছে এবং অভিযুক্ত চালককে গ্রেপ্তার করতে তারা পুলিশকে সহযোগিতা করারও আশ্বাস দিয়েছে।

ভারতে ধর্ষণ কোনো নতুন ঘটনা নয়। এমনকি রাজধানী দিল্লিতেই  প্রতিদিন গড়ে ছয়টি ধর্ষণ হয় বলে চলতি বছরের গোড়ার দিকে প্রকাশিত এক পরিসংখ্যান থেকে জানা গেছে।

গত বছর এই ডিসেম্বর মাসেই দিল্লির এক চলন্ত বাসে গণধর্ষণের শিকার হয়েছিলেন ২৩ বছরের এক মেডিকেল ছাত্রী।এ ঘটনার প্রতিবাদে ফুঁসে ওঠেছিল গোটা ভারত। পরে সিঙ্গাপুরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান ওই ছাত্রী।