ব্রেকিং নিউজ

রাত ৮:২৬ ঢাকা, সোমবার  ১৬ই জুলাই ২০১৮ ইং

আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল
স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মো. আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল

থার্টি ফাস্ট নাইটের নিরাপত্তায় আইন-শৃংখলা বাহিনী প্রস্তুত

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মো. আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল বলেছেন, ইংরেজী নববর্ষ উদযাপনের নামে থার্টি ফাস্ট নাইটে যাতে কোন অরাজক পরিস্থিতি ও নাশকতার সৃষ্টি না হয় সেজন্য আইন শৃংখলা বাহিনীর সদস্যরা প্রস্তুত রয়েছে।

তিনি বলেন, মানুষের জানমালের নিরাপত্তা ও দেশের শান্তিশৃংখলার কথা চিন্তা করেই উন্মুক্ত স্থান বা বাইরে কোন অনুষ্ঠান করতে দেয়া হবে না। এ ব্যাপারে এর আগে আইনশৃংখলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে অনুষ্ঠিত সভায় আমরা কিছু বিধি নিষেধ জারি করেছি।

তিনি আজ মঙ্গলবার বিকেলে রাজধানীর রমনার ইস্কাটন গার্ডেন রোডে পুলিশ কনভেনশন হলে ‘ঢাকা মেট্রোপলিটন শুটিং ক্লাব’ এর উদ্বোধন শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এসব কথা বলেন।

এ অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন, পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) এ কে এম শহীদুল হক, অতিরিক্ত আইজিপি (প্রশাসন ও অপারেশন) মো. মোখলেসুর রহমান, স্পেশাল ব্রাঞ্চের (এসবি) অতিরিক্ত আইজিপি ড. মো: জাবেদ পাটোয়ারি, বাংলাদেশ শুটিং স্পোর্ট ফেডারেশনের সভাপতি ও জ্বালানী এবং খনিজ সম্পদ বিভাগের সচিব নাজিমউদ্দিন চৌধুরী ও বাংলাদেশ অলিম্পিক এসোসিয়েশনের মহাসচিব শাহেদ রেজা।

এতে সভাপতিত্ব করেন ‘ঢাকা মেট্রোপলিটন শুটিং ক্লাব’ এর সভাপতি ও আমর্ড পুলিশ ব্যাটালিয়নের (এপিবিএন) অতিরিক্ত আইজিপি মো. সিদ্দিকুর রহমান।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, প্রতি বছরের ন্যায় এবারও নগরীতে সন্ধার পর বারগুলোতেও কোন মাদক বেচাকেনা করা যাবে না এবং অবৈধ মাদক বেচাকেনার বিরুদ্ধেও আইন-শৃংখলা বাহিনীর অভিযান চলবে।

আসাদুজ্জামান খাঁন বলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ও গুলশান এলাকায় অনুষ্ঠান করার নামে কেউ যাতে কোন অরাজক পরিস্থিতি সৃষ্টি করতে না পারে সেজন্য আইন-শৃংখলা বাহিনীর সদস্যরা পোশাকে ও সাদা পোশাকে সার্বক্ষনিক টহলে থাকবে।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, অনেকে ইচ্ছা করেই নিখোঁজ হয়, আবার অনেকে গা ঢাকা দেয়। অনেকে আবার কিছু সময়ের পর ফিরেও আসে।