ব্রেকিং নিউজ

রাত ৯:৪৪ ঢাকা, বুধবার  ১৯শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ ইং

তুরস্কে ৭৯ গণমাধ্যম বন্ধের ঘোষণা

ব্যর্থ সেনা অভ্যুত্থানের পর তুরস্কে দমনাভিযানের অংশ হিসেবে উল্লেখযোগ্য সংখ্যক গণমাধ্যম বন্ধের ঘোষণা দিয়েছে সরকার।

এর ফলে দেশটিতে ৩টি সংবাদ সংস্থা, ১৬টি টেলিভিশন চ্যানেল, ৪৫টি পত্রিকা ও ১৫টি ম্যাগাজিন বন্ধ হয়ে যাবে। খবর বিবিসির।

এর আগে গতকাল বুধবার তুর্কি কর্তৃপক্ষ ৪৭ জন সাংবাদিককে আটকের নির্দেশ দেয়। ৪২ জন সাংবাদিকের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারির কয়েকদিন পরই এই নির্দেশ দেয়া হল।

তবে কোন কোন গণমাধ্যম বন্ধ করে দেয়া হচ্ছে, সেগুলোর নাম-তালিকা এখনও প্রকাশ করা হয়নি।

স্থানীয় গণমাধ্যম বলছে, বন্ধ হতে যাওয়া গণমাধ্যমগুলোর অধিকাংশই ক্ষুদ্র সংস্থা, প্রাদেশিক গণমাধ্যম। তবে বেশ কয়েকটি জাতীয় দৈনিক পত্রিকা এবং সংস্থাও সরকারের খড়গহস্ত।

তুরস্কে গত ১৫ জুলাইয়ের ব্যর্থ সেনা অভ্যুত্থানের পর সেনাবাহিনীর এক হাজার সাতশ’ সদস্যকে অব্যাহতি দেয়া হয়েছে। এদের মধ্যে সেনাবাহিনীর ৮৭ জন জেনারেল, বিমান বাহিনীর ৩০ জন জেনারেল এবং নৌবাহিনীর ৩২ জন অ্যাডমিরাল রয়েছেন।

সরকারের অভিযোগ, ওই অভ্যুত্থানের জন্য যুক্তরাষ্ট্রে নির্বাসিত তুর্কি ধর্মীয় নেতা ফেতুল্লাহ গুলেন দায়ী। তবে গুলেন এই অভিযোগ অস্বীকার করে আসছেন।

অভ্যুত্থানে অভ্যুত্থানে অংশ নেয়া সেনা সদস্যসহ অন্তত ২৪৬ জন নিহত হয়। পাশাপাশি আহত হয়েছে ২ হাজারেরও বেশি মানুষ।  পরে ৫০ হাজারের অধিক মানুষকে আটক করা হয়।