Sheersha Media

ব্রেকিং নিউজ

রাত ১২:২৪ ঢাকা, সোমবার  ১৯শে নভেম্বর ২০১৮ ইং

তারেক-ফখরুলের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে কটূক্তির অভিযোগে করা মানহানির মামলায় বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমান ও ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেছেন আদালত।
মঙ্গলবার সকালে ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আনোয়ার ছাদাতের আদালত এ আদেশ দেন।
আওয়ামী লীগকে ‘কুলাঙ্গারের দল’ এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ‘কুলাঙ্গার দলের নেত্রী’ বলায় গত বছরের ৮ সেপ্টেম্বর তারেক রহমান ও মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের বিরুদ্ধে ঢাকার সিএমএম আদালতে মামলাটি দায়ের করেছিলেন জননেত্রী পরিষদের সভাপতি এ বি সিদ্দিকী।
মামলার অভিযোগে বলা হয়, গত বছরের ২৪ আগস্ট লন্ডনের কুইনমেরি ইউনিভার্সিটিতে তারেক রহমান এক আলোচনা সভায় ‘আওয়ামী লীগ নেতারা কুলাঙ্গার এবং শেখ হাসিনা কুলাঙ্গারদের নেত্রী’, গত ২ সেপ্টেম্বর বিএনপির প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীর অনুষ্ঠানে ‘জিয়াউর রহমান বাংলাদেশের প্রথম রাষ্ট্রপতি’ ও ‘মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাসকারকরা তেলবাজ’ বলে বক্তব্য রেখেছেন। যা মিথ্যা, বানোয়াট ও মানহানিকর ও শাস্তিযোগ্য অপরাধ।
অন্যদিকে গত ৫ সেপ্টেম্বর সাবেক অর্থমন্ত্রী সাইফুর রহমানের মৃত্যুবার্ষিকীর অনুষ্ঠানে ‘বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ৭ মার্চের ভাষণ শেষে ‘জয় পাকিস্তান’ বলেছেন এবং ‘বঙ্গবন্ধু স্বাধীনতার ঘোষণা দেন নাই’ বলে মির্জা ফখরুল ইসলাম বক্তব্য দিয়েছেন। যা মিথ্যা, বানোয়াট ও মানহানিকর ও শাস্তিযোগ্য অপরাধ।
ওই সকল বক্তব্য গত বছরের ২৬ আগস্ট, ৩ সেপ্টেম্বর ও ৬ সেপ্টেম্বর বাংলাদেশের বিভিন্ন দৈনিক পত্রিকায় প্রকাশ পেয়েছে।
মামলার অভিযোগে বলা হয়, তারা এসব বক্তব্যে ৫শ’ কোটি টাকার মানহানি করেছেন। যা দণ্ডবিধির ৪৯৯ এবং ৫০০ ধারায় শাস্তিযোগ্য অপরাধ।
মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বর্তমানে কারাগারে আছেন। তারেক রাহমান দীর্ঘদিন যাবত লন্ডনে অবস্থান করছেন।