Press "Enter" to skip to content

“তারেক জিয়া হত্যা ও ষড়যন্ত্রের রাজনীতির সঙ্গে জড়িত”

তারেক রহমান হত্যা ও ষড়যন্ত্রের রাজনীতি করছে বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ। তিনি বলেন, তারেক জিয়া হত্যা ও ষড়যন্ত্রের রাজনীতির সঙ্গে সবসময় জড়িত। সে বিদেশের মাটিতে বসেই টিউলিপ সিদ্দিককে হারানোর সর্বোচ্চ চেষ্টা করেছে। এর সব তথ্য প্রমাণও আছে।

শুক্রবার দুপুরে কুষ্টিয়ার নিজ বাসভবনে দলীয় নেতাকর্মীদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।
মাহবুব উল আলম হানিফ বলেন, বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমান জাতির পিতার হত্যার সাথে সম্পৃক্ত ছিল। তিনি বলেন, বিএনপি যখনই রাষ্ট্র ক্ষমতায় এসেছে তখনই আওয়ামী লীগকে ধ্বংস করার চেষ্টা করেছে।
হানিফ দাবি করেন, বঙ্গবন্ধু পরিবারকে হত্যা করার পরিকল্পনার এজেন্ডা বাসত্মবায়নের জন্যই বিএনপির আগমন। তারা এদেশে ব্যর্থ হয়ে বিদেশের মাটিতে যেয়েও ষড়যন্ত্রে লিপ্ত রয়েছে।
মধ্যবর্তী নির্বাচন প্রসঙ্গে হানিফ বলেন, মধ্যবর্তী নির্বাচন হওয়ার কোন সুযোগ নেই। কারণ তার কোন প্রয়োজন নেই। জনগণ এখন বর্তমান সরকারের আস্থাশীল। যে সরকার দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে, দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়ন করছে,সেই সরকার কার স্বার্থে মধ্যবর্তী নির্বাচন করবে। বেগম খালেদা জিয়ার কথায় নির্বাচন হবে না, কারণ জনগণ তা চায় না। নির্বাচন যথাসময়ে ২০১৯ সালেই হবে।
এ সময় জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সদর উদ্দিন খান, সাধারণ সম্পাদক আজগর আলী উপস্থিত ছিলেন।

Mission News Theme by Compete Themes.