ব্রেকিং নিউজ

রাত ৮:১৯ ঢাকা, বৃহস্পতিবার  ২০শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ ইং

তোফায়েল আহমেদ
বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ, ফাইল ফটো

তথ্যপ্রযুক্তি পণ্য রফতানিতে নগদ প্রণোদনা থাকবে : বাণিজ্যমন্ত্রী

বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমদ বলেছেন, তথ্যপ্রযুক্তি পণ্য রফতানির জন্য নগদ প্রণোদনা দেয়া হবে। অন্য রফতানি পণ্যে আমরা যেমনি সহায়তা দিই, তথ্যপ্রযুক্তি পণ্যেও তাই দেবো।

গত বৃহস্পতিবার রাজধানীর এলিফ্যান্ট রোডের কম্পিউটার সিটি সেন্টার (মাল্টিপ্লান) আয়োজিত ডিজিটাল আইসিটি মেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

কম্পিউটার সিটি সেন্টারের সভাপতি তৌফিক এহসানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বেসিস সভাপতি মোস্তাফা জব্বার, বিসিএস সভাপতি আলী আশফাক, মুক্তিযোদ্ধা মোস্তফা মহসিন মন্টু, এফবিসিসিআই পরিচালক মোতালেব আহমদ প্রমূখ বক্তব্য রাখেন।

বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, ডিজিটাল বাংলাদেশ বাস্তবায়নে সরকার তথ্যপ্রযুক্তি খাতে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিচ্ছে। দেশ এখন তথ্যপ্রযুক্তি খাতে অনেকদুর এগিয়েছে। বিশ্বের অনেক দেশ বাংলাদেশকে অনুসরণ করে। আগামীতে দেশের গার্মেন্টসের মতোই বড় খাত হবে তথ্যপ্রযুক্তি খাত, তথ্যপ্রযুক্তি শিল্পের উদ্যোক্তাদের এমন লক্ষ্যের সাথে আমরাও একমত।

তিনি বলেন, দেশীয় বাজারের পাশাপাশি আন্তর্জাতিক বাজারেও আমাদের তথ্যপ্রযুক্তি পণ্য ও সেবা বড় বাজার তৈরি করতে পারবে সেই প্রত্যাশা করি। ২০২১ সালে বাংলাদেশ এক্ষেত্রে সহযোগিতার জন্য সরকারের পক্ষ থেকে তথ্যপ্রযুক্তি খাতের রফতানি বৃদ্ধিতে প্রণোদনা দেয়া হবে।

অনুষ্ঠানের বেসিস সভাপতি মোস্তাফা জব্বার বলেন, শিল্প-বাণিজ্যের অনেক খাতে নগদ প্রণোদনা দেয়া হয়, তথ্যপ্রযুক্তি খাতেও দেয়া প্রয়োজন। তথ্য প্রযুক্তি খাতে বাণিজ্যমন্ত্রীর প্রণোদনা দেয়ার ঘোষণা এই শিল্পকে আরো এগিয়ে নিয়ে যাবে বলে তিনি প্রত্যাশা ব্যক্ত করেন।

বেসিস সভাপতি আরো বলেন, সত্যিকার অর্থে দেশের তথ্যপ্রযুক্তি খাতের উন্নয়ন করতে হলে আমাদেরকে আরো কিছু পদক্ষেপ নিতে হবে। স্যামসাং, এইচপি, ডেলের মত্যে বিশ্বের স্বনামধন্য হার্ডওয়্যার কোম্পানিগুলো বাংলাদেশে ব্যবসা অব্যাহত রাখতে চাইলে তাদেরকে বাংলাদেশে সেসব পণ্য তৈরি করতে হবে এবং বাংলাদেশ থেকেই বিদেশে রফতানি করতে হবে। একইসাথে সরকারি উদ্যোগে যেসব তথ্যপ্রযুক্তি উদ্যোগ নেওয়া হয় তার কাজ বাংলাদেশি কোম্পানিকে দিয়ে করাতে হবে বলে দাবি জানান বেসিস সভাপতি।