শীর্ষ মিডিয়া

ব্রেকিং নিউজ

বিকাল ৪:৩৪ ঢাকা, শুক্রবার  ২২শে ফেব্রুয়ারি ২০১৯ ইং

শেখ হাসিনা ও নরেন্দ্র মোদি
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি

‘ঢাকা-দিল্লি একে অপরের পাশে থাকবে’

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি উন্নয়নের পথে একসঙ্গে হেঁটে যাওয়ার অঙ্গীকার পুনর্ব্যক্ত করেছেন।

ব্রিকস-বিমসটেক আউটরিচ সামিট শেষে এখানে গতরাতে এক দ্বিপাক্ষিক বৈঠককালে দুই প্রধানমন্ত্রী আগামী দিনে একে অপরের পাশে থাকারও দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করেন।

বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের ব্রিফিংকালে পররাষ্ট্র সচিব এম শহীদুল হক এবং প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম জানান, দুই নেতা খুব আন্তরিক পরিবেশে পারস্পরিক স্বার্থ-সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন বিষয় নিয়ে  আলোচনা করেছেন।

 পররাষ্ট্র সচিব বলেন, ‘দ্বিপক্ষীয় সকল বিষয় আলোচনায় এসেছে এবং আমরা ভারতের সঙ্গে সব সমস্যা সমাধানে আশাবাদী।’
তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার এ বছরের শেষে নয়াদিল্লী সফরের সম্ভাবনা রয়েছে এবং পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা এ সফরের প্রস্তুতি নিচ্ছেন।

পররাষ্ট্র সচিব বলেন, নরেন্দ্র মোদী সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে শেখ হাসিনার দৃঢ় ভূমিকার ভূয়সী প্রশংসা করেন এবং দুই প্রধানমন্ত্রী জঙ্গিবাদ ও সন্ত্রাসবাদ মোকাবেলার উপায় নিয়েও আলোচনা করেন।

তিনি বলেন, ‘সন্ত্রাস মোকাবেলা কার্যকরভাবে কিভাবে করা যেতে পারে তা নিয়ে দুই নেতা আলোচনা করেন এবং বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সন্ত্রাস মোকাবেলায় বাংলাদেশের অভিজ্ঞতা তুলে ধরেন।’

শেখ হাসিনা সন্ত্রাস মোকাবেলায় তার সরকারের গৃহিত বিভিন্ন উদ্যোগের কথা নরেন্দ্র মোদিকে জানিয়ে বলেন, পরিবার, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এবং ধর্মীয় নেতাসহ সর্বস্তরের জনগণকে এ উদ্যোগে শরীক করা হয়েছে।

পররাষ্ট্র সচিব বলেন, দুই প্রধানমন্ত্রী সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদের সামাজিক প্রভাবসমূহ ব্যাপকভাবে মোকাবেলার পাশাপাশি ক্ষতিকর এসব প্রভাবের বিরুদ্ধে আইন প্রয়োগের বিষয়েও একমত হয়েছেন।

এক প্রশ্নের জবাবে পররাষ্ট্র সচিব বলেন, তিস্তা ইস্যু আলোচনায় না আসলেও বাংলাদেশ এ সমস্যা সমাধানে খুবই আশাবাদী।