Sheersha Media

ব্রেকিং নিউজ

রাত ৯:০৮ ঢাকা, বৃহস্পতিবার  ১৫ই নভেম্বর ২০১৮ ইং

ঢাকাস্থ থাই দূতাবাসের সতর্কতা

বাংলাদেশে অবস্থানরত থাইল্যান্ডের নাগরিকদের সতর্ক করেছে দেশটির ঢাকাস্থ দূতাবাস। এতে থাই নাগরিকদের অতি সতর্কভাবে চলাফেরা করতে বলা হয়েছে। বলা হয়েছে সরকারি অফিস ও ঢাকার গুরুত্বপূর্ণ ভেন্যুগুলো এড়িয়ে চলতে। একই সঙ্গে যেসব শহরে সহিংসতা দেখা দিয়েছে সেখানেও সতর্কতা অবলম্বনের আহ্বান জানানো হয়েছে। ৫ই জানুয়ারির সংঘর্ষে চারজন নিহত হওয়ার পর গতকালই প্রথম এমন সতর্কতা ঘোষণা করেছে থাই দূতাবাস। অনলাইন ব্যাংকক পোস্ট এ খবর দিয়েছে। এতে বলা হয়েছে, ৫ই জানুয়ারি প্রধান বিরোধী দল বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপি ও তার মিত্ররা ‘গণতন্ত্র হত্যা দিবস’ পালনের ঘোষণা দেয়। এ নিয়ে সহিংসতা ঘটে রাজপথে। এর জবাবে সরকার বিএনপি নেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে তার অফিসে অবরুদ্ধ করে রাখে। এরই প্রেক্ষিতে তিনি তার সমর্থকদের প্রতি সড়ক, রেল, মহাসড়ক ও নৌরুট অবরোধের আহ্বান জানান সমর্থকদের প্রতি। সরকার যাতে নতুন নির্বাচন দিতে বাধ্য হয় সে জন্য এ কর্মসূচি পালনের আহ্বান জানান তিনি। তাই যেহেতু পরিস্থিতি ক্রমাগত উত্তেজনাপূর্ণ হয়ে উঠছে সে জন্য পরিস্থিতি থাইল্যান্ডের নাগরিকদের নিবিড়ভাবে পর্যবেক্ষণ করতে সতর্ক করা হয়েছে। সফরের ক্ষেত্রে অতিরিক্ত সতর্কতা অবলম্বনের আহ্বান জানানো হয়েছে। তাদেরকে পরামর্শ দেয়া হয়েছে যে, সরকারি বাসভবন, বড় বড় সরকারি অফিস, রাজনৈতিক দলগুলোর অফিস, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ও বড় বড় শহর এড়িয়ে চলতে। বিক্ষোভ চলাকালে তাদেরকে পরামর্শ দেয়া হয়েছে বাসায় অবস্থান করতে। নিশ্চিত হতে পরামর্শ দেয়া হয়েছে যে, তাদের ঘরে প্রতিবাদের এই সময়ে পর্যাপ্ত খাদ্য ও পানি আছে কিনা তা নিশ্চিত হতে। জরুরি প্রয়োজনে থাই নাগরিকদের দূতাবাসের সঙ্গে যোগাযোগ করতে কয়েকটি টেলিফোন নম্বর দেয়া হয়েছে। সেগুলো হলো- +৮৮(০২) ৮৮১২৭৯৫, +৮৮(০২)৮৮১২৭৯৬ এক্সটেনশন-১০১ ও ১০৭, +৮৮(০১) ৬৮১৭৯২২৬২। অথবা ই-মেইলে যোগাযোগ করতে বলা হয়েছে। ই-মেইল ঠিকানা হলো haidac@mfa.go.th.