Sheersha Media

ব্রেকিং নিউজ

রাত ৯:২২ ঢাকা, শনিবার  ১৭ই নভেম্বর ২০১৮ ইং

বর্জ্য অপসারণ ব্যবস্থা
ঢাকার বর্জ্য বর্জ্য অপসারণ ব্যবস্থা

ঢাকার বর্জ্য ‘রাতে’ অপসারণ করতে হবে

রাত ১০টা থেকে সকাল ৬টার মধ্যে ঢাকা সিটির বর্জ্য অপসারণের নির্দেশ দিয়েছে হাইকোর্ট। এছাড়া বর্জ্য অপসারণে ঢাকনাযুক্ত আবদ্ধ যান ব্যবহারে ব্যর্থতায় রুল জারি।

আদেশে বলা হয়, খোলা ট্রাকে এসব বর্জ্য অপসারণ বন্ধ করে নির্ধারিত সময়ে ঢাকনাযুক্ত আবদ্ধ যান ব্যবহার করতে হবে।

এছাড়া রুল জারি করেছে আদালত। নির্ধারিত সময়ের মধ্যে বর্জ্য অপসারণে ঢাকনাযুক্ত আবদ্ধ যান ব্যবহারে বিবাদীদের ব্যর্থতা কেন অবৈধ হবে না এবং বর্জ্য ব্যবস্থাপনায় সুনির্দিষ্ট বিধি প্রণয়নের কেন নির্দেশ দেয়া হবে না- রুলে তা জানতে চাওয়া হয়েছে।

বিচারপতি কাজী রেজা-উল হক ও বিচারপতি মোহাম্মদ উল্লাহ’র সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্টেও একটি ডিভিশন এ সংক্রান্ত এক রিট আবেদনের শুনানি নিয়ে আজ এ আদেশ দেয়। এ আদেশ অনুযায়ি কি পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে, সে বিষয়ে প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে। বিষয়টি আগামী ১০ ডিসেম্বর পরবর্তী আদেশের থাকবে।

রিটের পক্ষে শুনানি করেন ব্যারিস্টার এ বি এম আলতাফ হোসেন ও ব্যারিস্টার মাহফুজুর রহমান মিলন। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি এটর্নি জেনারেল তাপস কুমার বিশ্বাস।

গত ৯ সেপ্টেম্বর একটি জাতীয় দৈনিকে ‘শহরে বর্জ্য ছড়াচ্ছে ৩৭৮ খোলা ট্রাক’ শিরোনামে প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়। এ প্রতিবেদন যুক্ত করে রিট আবেদনটি করেন জাস্টিস ওয়াচ ফাউন্ডেশনের নির্বাহী পরিচালক ব্যারিস্টার মাহফুজুর রহমান মিলন। রিটে স্থানীয় সরকার সচিব, আইনসচিব, পরিবেশসচিব, ঢাকার দুই সিটি করপোরেশনের মেয়র ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা, পরিবেশ অধিদফতরের মহাপরিচালকসহ ১৫ জন রেসপনডেন্ট (প্রতিপক্ষ) করা হয়েছে।

পত্রিকায় প্রকাশিত ওই প্রতিবেদনে বলা হয়, লালবাগ, কামরাঙ্গীরচর, ধানমন্ডি, বংশাল, যাত্রাবাড়ী, মুগদা, বিজয় স্মরণী, বাড্ডা, তেজগাঁও রেলগেট, মোহাম্মদপুর, গাবতলী এলাকায় অন্তত ১৫টি খোলা ট্রাকে এভাবে বর্জ্য বহন করতে দেখা যায়। এগুলোর মধ্যে মাত্র ৩টিতে ত্রিপল ব্যবহার করতে দেখা গেছে। তাও সেগুলো ছিল ছেঁড়া।

জানা গেছে, ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন (ডিএসসিসি) ১৪০টি খোলা ট্রাকে বর্জ্য পরিবহন করে। আর ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) খোলা ট্রাক আছে ২৩৮টি। রাজপথে দুর্গন্ধ ছড়িয়ে ময়লাবাহী ট্রাকগুলো যায় দুটি গন্তব্যে। ঢাকা দক্ষিণের ময়লা নেয়া হয় মাতুয়াইল স্যানিটারি ল্যান্ডফিলে এবং উত্তরের ময়লা ফেলা হয় আমিনবাজারের ল্যান্ডফিলে।

 

আরো পড়তে পারেন 

মিয়ানমারকে ঋণ সহায়তা স্থগিত : বিশ্বব্যাংক