Sheersha Media

ব্রেকিং নিউজ

রাত ১২:৫১ ঢাকা, বুধবার  ১৪ই নভেম্বর ২০১৮ ইং

হিলারি ক্লিনটন
হিলারি ক্লিনটন

ডেমোক্রেটিক মনোনয়ন পেলেন হিলারি

যুক্তরাষ্ট্রের আসন্ন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ডেমোক্রেটিক দলের প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন পেয়ে হিলারি ক্লিনটন ইতিহাস সৃষ্টি করেছেন। দেশটির ইতিহাসে তিনিই হলেন প্রধান কোনো রাজনৈতিক দলের প্রথম নারী প্রেসিডেন্ট প্রার্থী।

সাবেক ফার্স্ট লেডি, সিনেটর ও পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিলারি দেশের প্রথম নারী প্রেসিডেন্ট হওয়ার পথে এক ধাপ এগিয়ে গেলেন। তিনি বার্নি স্যান্ডার্সের সঙ্গে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে ডেমোক্রেটিক দলের প্রার্থীতা লাভ করেছেন। মঙ্গলবার ফিলাডেলফিয়ায় দলীয় এক সম্মেলনে তার প্রার্থীতা ঘোষণা করা হয়।

আগামী নভেম্বরে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রিপাবলিকান প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে লড়বেন হিলারি ক্লিনটন।

প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন পাওয়ার পর তিনি এক টুইটার বার্তায় বলেন, ‘ইতিহাস’।

তবে দলীয় সম্মেলনের শুরুতে হিলারি ক্লিনটনের প্রার্থিতা নিয়ে ডেমোক্রেটিক পার্টিতে স্পষ্ট বিভক্তি ফুটে উঠতে দেখা গেছে। বার্নি স্যান্ডার্সের কড়া সমর্থকরা হিলারির বিরুদ্ধে দুয়োধ্বনিও করেছেন। একপর্যায়ে প্রতিনিধিদের রোল কল ভোট শেষে দলীয় ঐক্যের প্রতীক হিসেবে হিলারি ক্লিনটনের সাবেক প্রতিদ্বন্দ্বি বার্নি স্যান্ডার্স মাইক্রোফোন হাতে নিয়ে হিলারিকে আনুষ্ঠানিক মনোনয়ন দেয়ার আহ্বান জানান।

তিনি বলেন, ‘আমি মনে করি নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতার জন্য হিলারি ক্লিনটন ডেমোক্রেটিক দলের মনোনয়ন পাবেন।’

মার্কিন কংগ্রেসের ইতিহাসে সবচেয়ে বেশি সময় দায়িত্ব পালনকারী মেরিল্যান্ডের সিনটর বারবারা মিকালকি ডেমোক্রেটিক দলের প্রার্থী হিসেবে হিলারির নাম প্রস্তাব করেন। জর্জিয়ার কংগ্রেসম্যান মানবাধিকার কর্মী জন লেউইস তা সমর্থন করেন।

সম্মেলনে মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার পাশাপাশি ভাইস প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনও ভাষণ দেন। তিনি হিলারির পিছনে দলের অনৈক্যের উদ্বেগ নাকচ করে দেন।

এদিকে স্যান্ডার্সও তার সমর্থকদের হিলারির জন্য কাজ করার আহবান জানান।