Sheersha Media

ব্রেকিং নিউজ

রাত ১২:৩৮ ঢাকা, সোমবার  ১৯শে নভেম্বর ২০১৮ ইং

দুদক কর্মকর্তাদের ওপর হামলা
এই হামলায় চারজন আহত হয়েছেন

ডিসি অফিসে অভিযান, দুদক কর্মকর্তাদের ওপর হামলা

সিলেটের জেলা প্রশাসকের (ডিসি) কার্যালয়ে ঘুষের টাকাসহ সরকারী কর্মচারীকে আটকের ঘটনায় দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) কর্মকর্তাদের ওপর হামলার ঘটনা ঘটেছে।

বৃহস্পতিবার বিকাল সাড়ে ৪টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

এই হামলায় চারজন আহত হয়েছেন। আহতদের মধ্যে দুদকের কনস্টেবল মিসবাহ উদ্দিন আহমদকে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। অপর আহতরা হলেন- দুদক সিলেট অফিসের ডিএডি রঞ্জিত কুমার কর্মকার, ওয়াহিদ মুরাদ সোহাগ ও গাড়িচালক বিপ্লব।

দুদক সূত্রে জানা গেছে, নগরীর বাগবাড়ির বাসিন্দা অকিল চন্দ্র সূত্র ধর পায়েল এন্টারপ্রাইজ পেট্রল পাম্প স্থানান্তরের জন্য জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের ব্যবসা বাণিজ্য শাখায় আবেদন করেন। এজন্য ডিসি অফিসের কর্মচারী আজিজুল ইসলামের সঙ্গে ২০ হাজার টাকায় চুক্তি করেন।

ফাইল ছাড়িয়ে নিতে বৃহস্পতিবার বিকালে টাকা লেনদেনের সময় ডিসির কার্যালয়ে দুদক অভিযান চালিয়ে আজিজুল ইসলামকে গ্রেপ্তার করে। সাক্ষ্য প্রমাণের জন্য আটককৃতকে নিয়ে উপরে গেলে ডিসির কার্যালয়ের কর্মচারীরা নিচের গেট তালাবদ্ধ করে হামলা চালায়।

পুলিশি নিরাপত্তায় ডিসি অফিস ত্যাগ

সন্ধ্যা ৬টার দিকে দুদক কনস্টেবল মিসবাহ উদ্দিন জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে যেতে চাইলে ক্ষুব্ধ কর্মচারীরা লোহার পাইপ দিয়ে আঘাত করে তার মাথা ফাটিয়ে দেয়।

এ সময় ঘুষের ১০ হাজার টাকা ও জব্দকৃত কাগজ হামলা চালিয়ে আজিজের সহযোগীরা নিয়ে গেছে। আত্মরক্ষার্থে দুদক দল জেলা প্রশাসকের অফিস রুমে আশ্রয় নেয়।

ঘটনার পর জেলা প্রশাসন, দুদকর উর্ধ্বতন কর্মকর্তা ও আইন শৃংখলা বাহিনী ডিসির অফিস কক্ষে রুদ্ধদ্বার বৈঠক চলাকালে হঠাৎ করে দুদকের হাতে আটককৃত জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের ব্যবসা বাণিজ্য শাখার অফিস সহকারী আজিজুল ইসলাম কাঁপতে থাকেন। কিছুক্ষণের মধ্যে তিনি জ্ঞান হারিয়ে ফেলেন।

এসময় জেলা প্রশাসক তার জিম্মায় গ্রেপ্তারকৃত আজিজুল ইসলামকে নিয়ে দ্রুত ওসমানী হাসপাতালে চিকিৎসার ব্যবস্থা করেন। তিনি হৃদরোগী বলে জানা গেছে।

দুদকের পরিচালক শিরীন পারভিনের নেতৃত্বে অভিযান পরিচালনাকারী দলটির অক্ষত সদস্যরা তিন ঘণ্টা অবরুদ্ধ থাকার পর রাত সোয়া ৭টার দিকে পুলিশি নিরাপত্তায় ডিসি অফিস ত্যাগ করেছেন।