Sheersha Media

ব্রেকিং নিউজ

দুপুর ১:০১ ঢাকা, বুধবার  ২১শে নভেম্বর ২০১৮ ইং

ফাইল ফটো

ডিসিসি কর্মকর্তাকে পুলিশি নির্যাতন

বাংলাদেশ ব্যাংকের কর্মকর্তাকে নির্যাতনের ঘটনার রেশ কাটতে না কাটতেই এবার সিটি করপোরেশেনের এক কর্মকর্তাকে লাঠি ও বন্দুকের বাট দিয়ে পিটিয়ে আহত করেছে পুলিশ।

শুক্রবার ভোর সাড়ে ৫টার রাজধানীর যাত্রাবাড়ীতে  মীরহাজিরবাগ এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। আহত বিকাশ চন্দ্রের অবস্থা আশঙ্কাজনক। তাকে চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

আহতের ভাই চন্দন দাস গণমাধ্যমকে জানান, শুক্রবার ভোরে মোটরসাইকেলযোগে বিকাশ চন্দ্র তার দয়াগঞ্জের বাসায় যাচ্ছিলেন। সায়দাবাদ পার হয়ে মীরহাজিরবাগ এলাকায় পৌঁছার সাথে সাথে সেখানে অবস্থানরত সাদা পোশাকধারী পুলিশের কয়েকজন সদস্য তার গতিরোধ করে| এ সময় বিকাশ ছিনতাইকারী ভেবে মোটরসাইকেল চালিয়ে চলে যাওয়ার চেষ্টা করে। কিন্তু পুলিশ সদস্যরা তাকে আটক করে কোন রকম জিজ্ঞাসাবাদ ছাড়াই  লাঠি ও বন্দুকের বাট দিয়ে বেধড়ক পেটায়। পরে পথচারীরা তাকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে।

ঢামেক মেডিকেল ক্যাম্পের ইনচার্জ মোজাম্মেল হক গণমাধ্যমকে ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, আহত বিকাশ চন্দ্রের অবস্থা আশঙ্কাজনক।
চিকিৎসাধী অবস্থায় বিকাশ বলেন, আমি পুলিশের সিগন্যাল বুঝতে পারিনি। ভেবেছিলাম তারা ছিনতাইকারী। গাড়ি চালিয়ে যাওয়ার সময় আমাকে আক্রমণ করে পুলিশ। তাদের কাছে নিজের পরিচয় দেই। পরিচয় পাওয়ার পরও এসআই আশরাফ গালি দিতে থাকেন।

বিকাশ জানান, লাঠির আঘাতে মাথা ফেটে রক্ত বের হতে থাকলেও কয়েকবার আঘাত করেন এসআই আশরাফ। এক পর্য়ায়ে আমার পকেটের ওয়্যারলেস দেখে পুলিশ আমাকে ফেলে চলে যায়।

যাত্রাবাড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) অবনি শংকর গণমাধ্যমকে বলেন, ভুল বোঝাবুঝির কারণে এমন ঘটনা ঘটেছে। বিকাশ যে সিটি কর্পোরেশনের কর্মকর্তা তা বোঝা যায়নি। যে ভুল বুঝাবুঝি হয়েছিল তার অবসান হয়েছে। এরপরও আমরা বিষয়টি তদন্ত করে দেখছি। কোনো অসৎ উদ্দেশে তাকে আটক করার চেষ্টা হয়েছে কি না তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।