শীর্ষ মিডিয়া

ব্রেকিং নিউজ

রাত ১১:৫২ ঢাকা, শুক্রবার  ১৪ই ডিসেম্বর ২০১৮ ইং

সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের
সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের, ফাইল ফটো

‘ডাল মে কুচ কালা হ্যায়’

বিএনপির মনোনয়নপ্রত্যাশী আবু বকর আবু হত্যার পেছনে দলীয় কোন্দল দেখছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, যশোরের কোন প্রার্থীর লাশ বুড়িগঙ্গা নদীতে, এর মানে তো ‘ডাল মে কুচ কালা হ্যায়’। এটা ওদের নিজস্ব কোন্দলের কারণেও হতে পারে।

শুক্রবার ধানমণ্ডিতে আওয়ামী লীগ সভানেত্রীর রাজনৈতিক কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেন ওবায়দুল কাদের।

যশোর জেলা বিএনপির সহসভাপতি আবু বকর আবু (৫৮) ঢাকায় এসে বিএনপির মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেছিলেন। সাক্ষাৎকার দেওয়ার জন্য ঢাকার পল্টনের এক হোটেলে ছিলেন। সেখান থেকে নিখোঁজ হন তিনি। এরপর বুধবার কেরানীগঞ্জে বুড়িগঙ্গা থেকে একজনের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। বৃহস্পতিবার লাশটি আবু বকর আবুর বলে শনাক্ত করেন তার ভাতিজা হুমায়ূন কবির।

স্বজনরা বলছেন, আবু বকরকে অপহরণ করে তাদের কাছ থেকে এক লাখ ৭০ হাজার টাকা আদায় করা হয়। টাকা নিলেও তাকে মুক্তি দেওয়া হয়নি।

বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর এ হত্যাকাণ্ডের জন্য আওয়ামী লীগকে দায়ী করে বলেন, ক্ষমতাসীনদের মদদে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে যশোরের এই নেতাকে।

এ বিষয়ে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, কারও সঙ্গে কোন্দলের কারণে তারা তাকে (আবু বকর) মারতে পারে। কিন্তু সেখানে আওয়ামী লীগের স্বার্থ থাকতে কী পারে? যশোরের মনোনয়ন প্রত্যাশীর লাশ বুড়িগঙ্গায় কেন পাওয়া গেল, তা খতিয়ে দেখতে হবে। তাদের তো অনেক মনোনয়নপ্রত্যাশী আছে। একজন সরে গেলে অন্যজনের জন্য সুবিধা হতেও পারে।

নির্বাচনকে ঘিরে বিএনপি নেতাদের হয়রানি করা হচ্ছে, এ অভিযোগের বিষয়ে সেতুমন্ত্রী বলেন, নয়াপল্টনে বিএনপির একজন আবাসিক প্রতিনিধি রয়েছেন। এ ধরনের আজগুবি অভিযোগ তিনি করছেন। এটা হচ্ছে মিথ্যাচার প্রডাকশনের জন্য। জনমত পক্ষে না থাকলে প্রশাসন দিয়ে কোনো মেকানিজম কাজ করবে না।

তিনি আরো বলেন, জনগণ আওয়ামী লীগকে যত আসনে ভোট দেবে, ততই পাবে। কে, কত আসন পাবে, সেটা দেশের জনগণই ঠিক করবে।