শীর্ষ মিডিয়া

ব্রেকিং নিউজ

ভোর ৫:৩৪ ঢাকা, শনিবার  ১৫ই ডিসেম্বর ২০১৮ ইং

পুতিন-ট্রাম্প
GETTY / FILE PHOTO

ট্রাম্পের সঙ্গে খুবই ভালো আলোচনা হয়েছে : পুতিন

রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন বলেছেন, মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে তার সংক্ষিপ্ত আলোচনা খুবই ভালো হয়েছে। প্যারিসে প্রথম বিশ্বযুদ্ধের শতবর্ষ স্মরণ অনুষ্ঠানের ফাঁকে তাদের মধ্যে এ আলোচনা হয়। রুশ গণমাধ্যমের বরাতে একথা জানিয়েছে এএফপি।

রোববার ট্রাম্পের সঙ্গে আলোচনা করতে পেরেছেন কিনা সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে পুতিন বলেন, ‘হ্যাঁ’। তাদের মধ্যকার আলোচনা কেমন হয়েছে জানতে চাইলে পুতিন বলেন, ‘ভালো’। তিনি বিস্তারিত আর কিছু জানাননি।

ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট কার্যালয় থেকে বলা হয়েছে, বিশ্বযুদ্ধ স্মরণ অনুষ্ঠানের পর দুপুরের খাবারের সময় দুই নেতার মধ্যে বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনা হয়। অনুষ্ঠানের আয়োজক ও ফরাসি প্রেসিডেন্ট এমানুয়েল ম্যাত্রেঁদ্ধা ও জার্মান চ্যান্সেলর অ্যাঞ্জেলা মার্কেল এ সময় কয়েকটি ইস্যুতে মতবিনিময় করেন।

তাদের মধ্যে মধ্যপ্রাচ্য সংকট বিশেষত সিরিয়া, ইরান ও সৌদি আরব ও উত্তর কোরিয়া ইস্যুতে আলোচনা হয়।

হোয়াইট হাউসের নারী মুখপাত্র সারাহ স্যান্ডার্স বলেন, দুপুরের খাবারের সময় ট্রাম্পের সঙ্গে পুতিন, ম্যাত্রেঁদ্ধা ও মার্কেলসহ বিশ্ব নেতাদের বৈঠক হয়েছে। এ সময় তাদের মধ্যে ‘খুবই ভালো ও গঠনমূলক’ আলোচনা হয়েছে।

স্যান্ডার্স বলেন, ‘বিশ্ব নেতারা আইএনএফ (পরমাণু চুক্তি), সিরিয়া, বাণিজ্য, সৌদি পরিস্থিতি, অবরোধ, আফগানিস্তান, চীন ও উত্তর কোরিয়াসহ বিভিন্ন ইস্যুতে আলোচনা করেন।’

রাশিয়ার সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের ইন্টারমিডিয়েট-রেঞ্জ নিউক্লিয়ার ফোর্সেস ট্রিটি (আইএনএফ) বিষয়ে আলোচনার জন্য বৈঠকে ট্রাম্পের প্রতি আহ্বান জানান পুতিন। ৫০০ থেকে সাড়ে ৫ হাজার কিলোমিটার পাল্লার ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবহার না করার বিষয়ে ১৯৮৭ সালে চুক্তি করে যুক্তরাষ্ট্র ও রাশিয়া।

গত মাসে রাশিয়ার বিরুদ্ধে চুক্তি লঙ্ঘনের অভিযোগ এনে আইএনএফ চুক্তি থেকে সরে আসার ঘোষণা দেন ট্রাম্প। এরপরই স্নায়ুযুদ্ধের সময়ের ওই চুক্তির বিষয়ে নতুন করে আবারও সংকট দেখা দেয় দু’দেশের মধ্যে।

পরে সাংবাদিকদের পুতিন বলেন, ‘আমরা আলোচনার জন্য প্রস্তুত। আইএনএফ চুক্তি থেকে সরে যাওয়ার কোনো ইচ্ছে আমাদের নেই, বরং চুক্তি থেকে যুক্তরাষ্ট্র বের হয়ে যাওয়ার পরিকল্পনা করছে।’ ট্রাম্পও বলেন, ‘তিনিও আলোচনায় আগ্রহী।

তবে শীর্ষ পর্যায়ের আলোচনার চেয়েও এ বিষয়ে দক্ষ এবং অভিজ্ঞদের মধ্যে বৈঠক হওয়াটা জরুরি বলে মনে করি আমি। আলোচনা হলে আমরা আবারও সমঝোতায় পৌঁছাতে পারব।’