ব্রেকিং নিউজ

সন্ধ্যা ৬:১৪ ঢাকা, রবিবার  ২৩শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ ইং

ওবায়দুল কাদের
আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের, ফাইল ফটো

‘ট্যুরিজম জোন হবে পার্বত্য চট্টগ্রাম’

সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, পার্বত্য চট্টগ্রাম অঞ্চলকে অচিরেই একটি ট্যুরিজম জোন হিসেবে গড়ে তোলা হবে। সেলক্ষ্যে সরকার কাজ করে যাচ্ছে।

মন্ত্রী বলেন, পার্বত্য তিন জেলা এবং কক্সবাজার অঞ্চলে ট্যুরিজমের ক্ষেত্রে নতুন নতুন রাস্তাঘাট ও সেতু-কালভার্টসহ অবকাঠামোগত উন্নয়নের মাধ্যমে আধুনিকায়নে প্রায় ৫ হাজার কোটি টাকা বরাদ্দ রয়েছে।

সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের আজ শুক্রবার দুপুরে বান্দরবান সার্কিট হাউসের সভাকক্ষে সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে বক্তব্যে এ কথা বলেন।
মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের পার্বত্য চট্টগ্রাম শান্তি চুক্তির ৭০ শতাংশ ইতিমধ্যেই বাস্তবায়ন হয়েছে উল্লেখ করে জানান, বর্তমান সরকারের সময়কালের মধ্যেই শান্তি চুক্তির পুর্ণাঙ্গ বাস্তবায়ন কাজ সম্পন্ন করা হবে।

সেতুমন্ত্রী দৃঢ়তার সঙ্গে বলেন, মধ্যবর্তী নিবাচনের জন্যে দেশের মানুষ কোন দাবি তোলেনি। সুতরাং মধ্যবর্তী নির্বাচনের প্রশ্নই উঠে না।

তিনি বলেন, সংসদের মাধ্যমে সরকারের কার্যকলাপের সূচনা যেখানে, সেই ক্ষেত্রে পুর্ণমেয়াদ অর্থাৎ ৫ বছর শেষ হওয়ার ৩ মাস আগেই কেবল জাতীয় নির্বাচনের প্রক্রিয়া শুরু হবে।

মন্ত্রী পার্বত্য অঞ্চলের উন্নয়নে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা খুবই আন্তরিক এবং এ কারণেই সর্বক্ষেত্রে অর্থ বরাদ্দ প্রদানের মাধ্যমে যোগাযোগ নেটওয়ার্ক দ্রুত সময়ের মধ্যেই গড়ে তোলা হচ্ছে। ফলে পাহাড়ের মানুষ এবং পাহাড়ি অঞ্চলে অর্থনৈতিকভাবে সামাজিক উন্নয়ন হচ্ছে।

পার্বত্য প্রতিমন্ত্রী বীর বাহাদুর, পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ক্যশৈ হ্লা, বিধান চন্দ্র ধর, জেলা প্রশাসক দিলীপ কুমার বণিক, পুলিশ সুপার সঞ্জিত কুমার রায়, পার্বত্য চট্টগ্রাম আঞ্চলিক পরিষদ সদস্য মো. শফিকুর রহমান, পৌরমেয়র ইসলাম বেবী এবং জেলা পর্যায়ের আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দ এ সময় উপস্থিত ছিলেন।