Sheersha Media

ব্রেকিং নিউজ

রাত ৪:১৫ ঢাকা, রবিবার  ১৮ই নভেম্বর ২০১৮ ইং

জিয়াউর রহমান
সাবেক বাংলাদেশের প্রেসিডেন্ট ও বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা মরহুম জিয়াউর রহমানের ফাইল ফটো

‘জিয়া ঠান্ডা মাথায় হত্যা করেন কর্নেল তাহেরকে’ – ইনু

জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল-জাসদ সভাপতি ও তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু বলেছেন, জিয়া তার পাকিস্তানপন্থী রাজনীতির পথ পরিষ্কার করতেই ঠান্ডা মাথায় কর্নেল তাহেরকে হত্যা করে। কর্নেল তাহের হত্যাকাণ্ড একটি রাজনৈতিক হত্যাকাণ্ড।

তিনি বলেন, জিয়া আর কর্নেল তাহের এর মধ্যে রাজনৈতিক বিরোধ ছিল। জিয়া বাংলাদেশকে পাকিস্তানি ধারায় ঠেলে দিতে চেয়েছিল। তাহের বাংলাদেশকে পাকিস্তানি ধারায় ঠেলে দেয়ার বিপরীতে বাংলাদেশকে মুক্তিযুদ্ধের ধারায় পরিচালিত করার জন্য ৭৫ এর ৭ নভেম্বর সিপাহী জনতার অভ্যূত্থান সংগঠিত করেছিলেন।

হাসানুল হক ইনু আজ ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে তাহের দিবস উপলক্ষে জাসদ আয়োজিত আলোচনা সভায় সভাপতির ভাষণে এ কথা বলেন।

এতে অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি এবং বিমান ও পর্যটন মন্ত্রী রাশেদ খান মেনন এমপি, বাংলাদেশের সাম্যবাদী দলের সাধারণ সম্পাদক দিলীপ বড়ুয়া, গণতন্ত্রী পার্টির সাধারণ সম্পাদক ডা. শাহাদাত হোসেন, কমিউনিস্ট কেন্দ্রের আহ্বায়ক ডা. ওয়াজেদুল ইসলাম, গণ আজাদী লীগের সভাপতি এড. এস কে সিকদার, ন্যাপ এর সহ-সম্পাদক ইসমাইল হোসেন, বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল-বাসদ রেজাউর রশিদ।

দলীয় নেতৃবৃন্দের মধ্যে বক্তব্য রাখেন দলের সাধারণ সম্পাদক শিরীন আখতার এমপি, কার্যকরী সভাপতি এড. রবিউল আলম, শহীদ কর্নেল তাহের এর অনুজ ও জাসদ স্থায়ী কমিটির সদস্য অধ্যাপক ড. আনোয়ার হোসেন, সিপাহী জনতার অভ্যূত্থানে শহীদ কর্নেল তাহের এর সহযোগী ফ্লাইট সার্জেন্ট রফিকুল হক বীর প্রতীক, জাসদ স্থায়ী কমিটির সদস্য এড. হাবিবুর রহমান শওকত, নাদের চৌধুরী প্রমুখ।

জিয়া ও তাহেরের যে রাজনৈতিক বিরোধ ছিল সেই বিরোধ এখনো অবসান হয়নি উল্লেখ করে ইনু বলেন, ‘বেগম জিয়া ও বিএনপি জিয়ার পাকিস্তানপন্থী রাজনীতি বহন করছে। আর আমরা জাসদ, ১৪ দল তাহেরের মুক্তিযুদ্ধের রাজনীতি বহন করছি।’

পাকিস্তানপন্থী রাজনীতির চির অবসানের আহবান জানিয়ে তিনি বলেন, রাজনীতির মাঠ থেকে রাজাকারদের বিদায় করতে হবে। রাজাকাররা বাংলাদেশে আর কোন দিনই ক্ষমতায় আসবে না। রাজাকার মুক্তিযোদ্ধার মিউজিক্যাল চেয়ার খেলা আর হবে না। সরকারেও মুক্তিযোদ্ধা থাকবে, বিরোধী দলেও মুক্তিযোদ্ধা থাকবে। ইনু কর্নেল তাহেরের চেতনায় মুক্তিযুদ্ধের পথে, সমাজতন্ত্রের পথে, লড়াই এগিয়ে নেয়ার জন্য জাসদের নেতা-কর্মীদের প্রতি আহ্বান জানান।

এছাড়াও দিবসের অন্যান্য কর্মসূচির মধ্যে ছিল ভোর ৬ টায় জাসদ কার্যালয়ে দলীয় পতাকা অর্ধনমিতকরণ ও কালো পতাকা উত্তোলন এবং সকাল ১০টা ৩০ মিনিটে কর্নেল তাহেরের প্রতিকৃতিতে মাল্যদান।

জাসদ সভাপতি ও তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু, সাধারণ সম্পাদক শিরীন আখতার সহ অন্যান্য নেতাকর্মীরা শহীদ কর্নেল আবু তাহের বীরউত্তম এর প্রতিকৃতিতে মাল্যদান করে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।

এছাড়াও শহীদ কর্নেল আবু তাহের বীরউত্তম এর ৪১তম বার্ষিকীতে আজ সকাল ১১টায় নেত্রকোনার পূর্বধলায় তার সমাধীতে জাসদ কেন্দ্রীয় কার্যকরী কমিটির পক্ষ থেকে পুস্পমাল্য অর্পণ করে শ্রদ্ধা নিবেদন করে। এ সময় উপস্থিত ছিলেন জাসদ কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সভাপতি ও শহীদ কর্নেল তাহের এরর সহধর্মীনী মিসেস লুৎফা তাহের এমপি, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এড. সাদিক হোসেনসহ অন্যান্য নেতাকর্মীরা। -বাসস