ব্রেকিং নিউজ

রাত ৪:০৪ ঢাকা, বৃহস্পতিবার  ২০শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ ইং

মাহবুব-উল-আলম হানিফ
আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল-আলম হানিফ এমপি, ফাইল ফটো

‘জিয়ার মরনোত্তর বিচার করা দেশবাসীর দাবি’

আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল-আলম হানিফ এমপি বলেছেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের হত্যার পরিকল্পনাকারী হিসেবে বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের মরনোত্তর বিচারের দাবি উঠেছে।

তিনি বলেন, ‘জিয়াউর রহমান বঙ্গবন্ধুর হত্যার পরিকল্পনাকারী হিসেবে চিহ্নিত হয়েছে।

বিএনপি দেশে হত্যার রাজনীতি শুরু করেছে উল্লেখ করে আওয়ামী লীগের এ নেতা আরো বলেন, দেশবাসীর দাবি, বিদেশে বঙ্গবন্ধুর পালাতক খুনীদের দেশে ফিরিয়ে এনে রায় কার্যকর করার সাথে বঙ্গবন্ধু হত্যার পরিকল্পনাকারী হিসেবে জিয়াউর রহমানের মরনোত্তর বিচার করা।

মাহবুব-উল-আলম হানিফ আজ বিকেলে রাজধানীর ধানমন্ডিস্থ আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের দেয়া বক্তব্যের জবাবে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেন।

মির্জা ফখরুল গতকাল এক আলোচনা সভায় আওয়ামী লীগের রক্তে সন্ত্রাস রয়েছে বলে উল্লেখ করেছিলেন।

সংবাদ সম্মেলনে আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক ডা. দীপুমণি এমপি, আবদুর রহমান এমপি, সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেন, একেএম এনামুল হক শামীম, খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, মুহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল, দপ্তর সম্পাদক ড. আবদুস সোবহান গোলাপ, তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক এডভোকেট আফজাল হোসেন, কৃষি ও সমবায় সম্পাদক ফরিদুন নাহার লাইলী প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

মাহবুব-উল-আলম হানিফ বলেন, আওয়ামী লীগের অতীত ঐতিহ্য জনগণের পক্ষে আন্দোলন করা। এ জন্য বঙ্গবন্ধুকে বারবার কারাবরণ করতে হয়েছে।

তিনি বলেন, ‘আর বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর আওয়ামী লীগের রক্তে সন্ত্রাস রয়েছে বলে উল্লেখ করেছেন।

তিনি বলেন, মির্জা ফখরুলের মুখেই এ ধরনের কথা বলা সম্ভব।’

মির্জা ফখরুলের এ ধরনের বক্তব্যে তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান হানিফ এবং ভবিষ্যতে এ ধরনের মিথ্যাচার থেকে বিরত থাকার আহবান জানান।

বিএনপির আন্দোলন কর্মসূচী সম্পর্কে হানিফ বলেন, প্রতিটি রাজনৈতিক দলের সাধারণ কর্মসূচী পালনের যেমন অধিকার রয়েছে তেমনি জনগণের স্বাভাবিকভাবে জীবন ধারণেও অধিকার রয়েছে।

সন্ত্রাস ও জঙ্গীবাদের বিষয়ে সরকার জিরো টলারেন্স নীতি গ্রহণ করেছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, আন্দোলনের নামে সন্ত্রাস ও জঙ্গীবাদী কর্মকান্ড করলে সরকার তা কঠোর হস্তে দমন করতে পিছপা হবে না।