Sheersha Media

ব্রেকিং নিউজ

রাত ৮:২৬ ঢাকা, সোমবার  ১৯শে নভেম্বর ২০১৮ ইং

জিএসপি স্থগিতের পেছনে রাজনৈতিক কারণ নেই : পুনর্বহাল চান কংগ্রেস সদস্য

বাংলাদেশে অগ্রাধিকারমূলক বাজার সুবিধা (জিএসপি) পুনর্বহাল হওয়া উচিত বলে মন্তব্য করলেন যুক্তরাষ্ট্রের কংগ্রেস সদস্য গ্রেস মেং। তিনি বলেন, জিএসপি  স্থগিত হওয়ার পেছনে ‘রাজনৈতিক কারণ’ নেই এবং অর্থনৈতিক অগ্রগতির স্বার্থে এ সুবিধা পুনর্বহাল হওয়া উচিত।
বৃহস্পতিবার নিউইয়র্কের ডেমক্র্যাট দলীয় এই সদস্যের ডিস্ট্রিক্ট কার্যালয়ে তার সঙ্গে দেখা করার পর এ তথ্য জানান বাংলাদেশি-আমেরিকান ডেমক্র্যাটিক লীগের প্রেসিডেন্ট খোরশেদ খন্দকার।
ওই বৈঠকে কংগ্রেসনাল বাংলাদেশ ককাসের প্রতিষ্ঠাতা কো-চেয়ার নিউইয়র্কের ডেমক্র্যাটদলীয় কংগ্রেসম্যান যোসেফ ক্রাউলিও ছিলেন। ২০১৩ সালে কারখানার কর্ম পরিবেশের উন্নতিসহ ১৬টি শর্তে বাংলাদেশের পণ্যের জিএসপি সুবিধা স্থগিত করে যুক্তরাষ্ট্র। সব শর্ত পূরণ হলেও দুবছর পরে বাংলাদেশকে বাদ দিয়ে ১২২টি দেশের পণ্যে জিএসপি নবায়ন করে যুক্তরাষ্ট্র।
বৃহস্পতিবারের বৈঠকে বাংলাদেশ প্রতিনিধি দলের নেতা খোরশেদ খন্দকার ‘অবিলম্বে বাংলাদেশকে জিএসপি সুবিধা পুনর্বহালের জন্যে সর্বাত্মক সহায়তার অনুরোধ’ জানিয়ে গ্রেস মেংকে একটি স্মারকলিপি দেন। খোরশেদ বলেন, স্মারকলিপিতে বাংলাদেশের পোশাক খাতের সামগ্রিক উন্নয়নের পাশাপাশি শ্রমিকদের কর্মপরিবেশ নিরাপদ করার জন্যে যুক্তরাষ্ট্র প্রশাসন যে দিক-নির্দেশনা দিয়েছিল তা অনুসরণ করা হয়েছে বলে উল্লেখ করা হয়েছে।
প্রতিনিধি দলের সদস্যদের মধ্যে ছিলেন- যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের সভাপতি ড. সিদ্দিকুর রহমান, যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আব্দুস সামাদ আজাদ, সহ-সভাপতি আবুল কাশেম এবং নির্বাহী সদস্য শাহানারা রহমান। আর গ্রেস মেংয়ের সঙ্গে বৈঠকে ছিলেন তার কম্যুউনিকেশন ডাইরেক্টর গোল্ডেস জর্দান। ইত্তেফাক