Press "Enter" to skip to content

জাহালমের দায় দুদককে নিতেই হবে : হাইকোর্ট

হাইকোর্ট  এক মন্তব্যে বলেছেন, সোনালী ব্যাংকের ঋণ জালিয়াতির ঘটনায় জাহালমের বিনা দোষে কারাভোগ করার দায় দুর্নীতি দমন কমিশনকে (দুদক) নিতেই হবে। এছাড়া জাহালমের ৩৩টি মামলার সব কাগজপত্র দুদককে জমা দেয়ার নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

বুধবার বিচারপতি এফ আর এম নাজমুল আহসান ও বিচারপতি কামরুল কাদেরের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এ নির্দেশ দেন। জাহালমের কারাভোগসংক্রান্ত মামলার শুনানি হয় এ দিন।

আদালতে দুদকের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী খুরশীদ আলম খান। ভুক্তভোগী জাহালমের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী অমিত দাসগুপ্ত।

দুদকের আইনজীবীর উদ্দেশ্য আদালত বলেন, দুদককে স্বাধীনতা দেয়া হয়েছে। সুপারিশের মধ্যে না থেকে দুদককে দুর্নীতিবাজদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে হবে।

দুদকের আইনজীবী খুরশীদ আলম জানান, টাঙ্গাইলের নাগরপুর ডুমুরিয়ার জাহালমকে দুদকের মামলায় ভুল আসামি করে অভিযোগপত্র দাখিলের যাবতীয় নথিপত্র তলব করেছেন হাইকোর্ট। ১০ এপ্রিল দুদককে এসব নথি দাখিল করতে নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

ভুল আসামি হয়ে ২৬ মামলায় প্রায় তিন বছর কারাগারে থাকা পাটকল শ্রমিক নিরীহ জাহালমকে সব মামলা থেকে অব্যাহতি দিয়ে ৩ ফেব্রুয়ারি মুক্তির নির্দেশ দেন হাইকোর্ট। এরপর গত ৩ ফেব্রুয়ারি রাতে মুক্তি পেয়ে নিজ গ্রামে ফেরেন জাহালম।

সোনালী ব্যাংকের প্রায় সাড়ে ১৮ কোটি টাকা জালিয়াতির অভিযোগে আবু সালেকের বিরুদ্ধে ৩৩টি মামলা হয়। এর মধ্যে ২৬টি মামলায় জাহালমকে আসামি আবু সালেক হিসেবে চিহ্নিত করে চার্জশিট দেয় দুদক।

Mission News Theme by Compete Themes.