শান্তি-উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন ১৪ দল ও মহাজোটের প্রার্থীদের পক্ষে ভোট দেওয়ার আহবান জানিয়েছেন জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল (জাসদ)।

আজ বুধবার বঙ্গবন্ধু এভিনিউস্থ শহীদ কর্নেল তাহের মিলনায়তনে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন উপলক্ষে জাসদের নির্বাচনী ইশতেহার ঘোষনার সময়এই আহবান জানানো হয়।

জাসদ সভাপতি ও তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু পরিবর্তনের ধারা সংহত করা ও এগিয়ে নেয়ার লক্ষ্য ৩৮টি প্রতিশ্রুতি দিয়ে এই ইশতেহার ঘোষণা করেন।

জাসদের ইশতেহারের বলা হয়, বিএনপি-জামায়াত জোটের রাজনৈতিক নীতিগত অবস্থানই স্বাধীনতা সংগ্রাম ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনা তথা বাংলাদেশ রাষ্ট্রের চেতনা বিরোধী। তাই বিএনপি-জামাত জোট দেশ ও জনগণের জন্য একটি বিপদ।

ইশতেহারের জঙ্গীবাদ দমন প্রসঙ্গে হাসানুল হক ইনু বলেন, জাসদ সরকার গঠনে ভূমিকা রাখলে জঙ্গীবাদ ও জঙ্গীবাদী নেটওয়ার্কসমূহ ধ্বংস করে জাতীয় নিরাপত্তা ও জননিরাপত্তা নিশ্চিত করতে জঙ্গীবাদ বিরোধী রাজনৈতিক ও প্রশাসনিক অভিযান অব্যাহত রাখা এবং জঙ্গীবাদ বিরোধী আন্তর্জাতিক ও আঞ্চলিক সহযোগিতা জোরদার করার জোর প্রচেষ্টা চালাবে।

তরুণদের বিষয়ে তিনি বলেন, দেশের প্রতিটি তরুণের জন্য নিশ্চিত ভবিষ্যত গড়তে জাতীয় ও আন্তর্জাতিক বাজারে প্রতিযোগিতা করার মত মানসম্মত শিক্ষার সুযোগ নিশ্চিত করা। তরুণরা যেন বেকার না থাকে এবং জাতীয় উন্নয়ন, সমাজ ও পরিবারের জন্য অবদান রাখার সুযোগ নিশ্চিত করতে ভূমিকা রাখবে।

কর্মসংস্থান সৃষ্টি প্রসঙ্গে জাসদ সভাপতি বলেন, চাকুরী প্রার্থীদের রেজিষ্ট্রেশন ও ডাটাবেজ তৈরি করা, সরকারি শূন্য পদসমূহে দ্রুত নিয়োগ সম্পন্ন এবং সরকারী চাকরি প্রার্থীদের বয়সসীমা ৩৫ বছর করার ক্ষেত্রে প্রচেষ্টা চালাবে।

এ সময়ে জাসদের সাধারণ সম্পাদক শিরীন আখতার এমপি, স্থায়ী কমিটির সদস্য মীর হোসাইন আখতার, প্রফেসর ড. আনোয়ার হোসেন ও মোশাররফ হোসেন, সহ-সভাপতি শহীদুল ইসলাম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।