ব্রেকিং নিউজ

সকাল ১০:৫৭ ঢাকা, শনিবার  ২২শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ ইং

জাভা সাগরে ব্লাকবক্সের সংকেত

জাভা সাগরে উচ্চ কম্পাঙ্কের বিশেষ শব্দ ‘পিং’ পাওয়া যাচ্ছে, ধারণা করা হচ্ছে এটি ব্লাকবক্সের ‘ফ্লাইট রেকর্ডার’ যন্ত্রাংশ থেকে আসছে। সর্বশেষ এ তথ্য জানিয়েছেন ইন্দোনেশীয় সেনাকর্মকর্তা জেনারেল মোয়েলদো। তিনি আরও জানান, বিষয়টির অনুসন্ধান করছেন ডুবুরিরা।
সমুদ্রের যে অংশে বিমানের লেজ পাওয়া গেছে, তার আশপাশ থেকেই এ শব্দটি আসছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। এ থেকে আরও ধারণা করা হচ্ছে, ব্লাকবক্সটি হয়ত বিমানের লেজের তার অভ্যন্তরে নেই, বিচ্ছিন্ন হয়ে বেরিয়ে গেছে।
ন্যাশনাল ট্রান্সপোর্টেশন সেফটি কমিটিএর একজন তদন্তকারী সান্তোসো সায়োগোও উচ্চ কম্পাঙ্কের শব্দ পাওয়ার বিষয়টি স্বীকার করেছেন। তিনি বলেন, ‘হ্যা, শব্দ সংগ্রাহকরা বিশেষ ঐ শব্দ শুনতে পেয়েছে। তবে, এ মুহূর্তে আমাদের মূল লক্ষ্য ব্লাকবক্স। ডুবুরিদের প্রথম কাজ হচ্ছে ঐ যন্ত্রটিকে খুঁজে বের করা। হতে পারে, দুর্ভাগ্যজনকভাবে ব্লাকবক্সটি লেজ থেকে বেরিয়ে গেছে। ডুবুরিদের বিষয়টি নিশ্চিত করতে হবে।’
মূলত, যতক্ষণ ঐ বিশেষ শব্দ ‘পিং’ পাওয়া যাচ্ছে, ততক্ষণই ব্লাকবক্সটি খুঁজে পাওয়ার উত্তম সময়। ব্লাকবক্সটি অযাচিত সবরকম দুর্ঘটনাতেও টিকে থাকার মতো ক্ষমতাসম্পন্ন করে তৈরি করা হয়, সেখানে থেকে ঐ বিশেষ শব্দতরঙ্গ ‘পিং’ অন্তত ৩০ দিন পর্যন্ত নিঃসৃত হতে পারে।
মালয়েশীয় বিমান কিউজেড৮৫০১ ইন্দোনেশিয়া থেকে সিঙ্গাপুর যাওয়ার পথে জাভা সাগরে ১৬২ আরোহী নিয়ে পতিত হয়। এখনও পর্যন্ত ৪০ টি মৃতদেহ পাওয়া গেছে, জীবিত কাউকে পাওয়া যায়নি।