জাপান সম্রাট নারুহিতো বলেছেন, তার স্ত্রী সম্রাজ্ঞী মাসাকোর অবস্থা এখনও স্থিতিশীল নয়। রাজকীয় দায়িত্ব পালনে ক্লান্ত সম্রাজ্ঞী দীর্ঘদিন ধরে স্নায়ুচাপে ভুগছেন।

গত বছর নারুহিতোর রাজকীয় দায়িত্ব গ্রহণের সময়ে মাসকো যথেষ্ট সুস্থ ছিলেন। কিন্তু চলতি বছর তিনি অসুস্থ হয়ে পড়েন। আর এটি এখন জাপানের বহুল আলোচিত বিষয়।

সম্রাটের ৬০তম জন্মদিন উপলক্ষে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, তার শারিরীক অবস্থা উঠানামা করছে। বড়ো ধরণের কোন আয়োজন কিংবা একের পর এক অনুষ্ঠানে অংশ নেয়ার বিষয় থাকলে তিনি বিষণ্নতায় ভুগতে শুরু করেন।

হার্ভাড ও অক্সফোর্ডে লেখাপড়া করা মাসাকো তার উজ্জ্বল পেশা জীবনের মায়া ত্যাগ করে ১৯৯৩ সালে রাজপরিবারে বিয়ে করেন। রাজপরিবার ২০০৪ সালে জানায়, স্নায়ুজনিত সমস্যার কারণে তার চিকিৎসা চলছে। ওই সময়ে রাজপরিবারের কিছু দায়িত্ব থেকে তাকে অব্যাহতিও দেয়া হয়।

এ রাজদম্পতির একমাত্র মেয়ে সন্তান প্রিন্সেস আইকো ২০০১ সালে জন্ম নেয়। জাপানের আইন অনুসারে নারী সিংহাসনে বসতে পারেন না বলে প্রিন্সেস আইকো সিংহাসনের পরবর্তী উত্তরাধিকারী নন। সম্রাট নারুহিতোর পর উত্তরাধিকারীর তালিকায় রয়েছেন তার ছোট ভাই ফুমিহিতো। এর পরে রয়েছেন ফুমিহিতোর সন্তান হিসাহিতো। জাপানে সম্রাটের কোনো রাজনৈতিক ক্ষমতা নেই। কিন্তু জাপানিরা সম্রাটকে জাতীয় প্রতীক হিসেবে দেখে থাকে।

এদিকে করোনাভাইরাস আতংকে জাপান সম্রাটের জন্মদিন উদযাপন উপলক্ষে গণজমায়েত বাতিল করা হয়েছে। উল্লেখ্য, রাজকীয় দায়িত্ব নেয়ার পর এটি ছিল তার প্রথম জন্মদিন।