ব্রেকিং নিউজ

সন্ধ্যা ৬:২৭ ঢাকা, মঙ্গলবার  ২৫শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ ইং

জরায়ু প্রতিস্থাপনের পর বিশ্বে প্রথম এক সুইডিশ নারী সন্তানের মা হয়েছেন

শীর্ষ মিডিয়া ৪ অক্টোবর ঃ  জরায়ু প্রতিস্থাপনের পর বিশ্বে এই প্রথম এক নারী সন্তানের মা হয়েছেন। সুইডিশ এ নারীর বয়স ৩৬ বছর।
মেডিকেল জার্নাল দ্য লানচেট শনিবার এ কথা জানিয়ে বলেছে, নারীর বন্ধ্যাত্ব চিকিৎসায় এটি বড় ধরনের অর্জন।
গত মাসে অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে সুইডিশ ওই নারী ৩.৯ পাউন্ড ওজনের একটি পুত্র সন্তান প্রসব করেন। মা ও সন্তান উভয়ই সুস্থ আছেন। ওই দম্পতির পরিচয় প্রকাশ করা হয়নি।
সুইডিশ ওই নারীর জন্মগতভাবেই জরায়ু ছিল না। কিন্তু ডিম্বাশয় ছিল। ৬১ বছর বয়স্কা পারিবারিক এক বন্ধুর কাছ থেকে জরায়ু পাওয়ার পর গত বছর ১০ ঘণ্টার অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে তার শরীরে এটি প্রতিস্থাপন করা হয়। প্রতিস্থাপনের পরের বছর আইভিএফ পদ্ধতিতে তিনি গর্ভবতী হন।
অস্ত্রোপচারে নেতৃত্ব দেয়া ইউনিভার্সিটি অব গোথেনবার্গের প্রফেসর ম্যাটস ব্রানস্ট্রমের উদ্ধৃতি দিয়ে জার্নালে বলা হয়, ‘১০ বছরেরও বেশি সময় ধরে পশুর ওপর নিবিড় গবেষণার পর আমাদের এ সফলতা আসে। এছাড়া আমাদের দলকে অস্ত্রোপচারে বিশেষভাবে প্রশিক্ষিত করা হয়।’
উল্লেখ্য, এ সফলতার কারণে জরায়ু সংক্রান্ত জটিলতায় যেসব নারী এতোদিন সন্তান প্রসবে অক্ষম ছিলেন তাদের সামনে সম্ভাবনার এক নতুন দিগন্ত খুলে গেল। সন্তান জন্মদানে অক্ষম এসব নারী দত্তক কিংবা সারোগেসির মাধ্যমে মা হতেন। কিন্তু নৈতিক, আইনগত ও ধর্মীয় কারণে বিশ্বের বহু দেশেই সারোগেসির অনুমতি নেই।