ব্রেকিং নিউজ

রাত ১:৪৫ ঢাকা, বুধবার  ১৯শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ ইং

জব্বারের আমৃত্যু কারাদন্ড

Like & Share করে অন্যকে জানার সুযোগ দিতে পারেন। দ্রুত সংবাদ পেতে sheershamedia.com এর Page এ Like দিয়ে অ্যাক্টিভ থাকতে পারেন।

 

মানবতাবিরোধী অপরাধে অভিযুক্ত জাতীয় পার্টির সাবেক সংসদ সদস্য পিরোজপুরের ইঞ্জিনিয়ার আব্দুল জব্বারের বিরুদ্ধে আমৃত্যু কারাদন্ডের আদেশ দিয়েছেন আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল-১।
মঙ্গলবার বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিমের নেতৃত্বে ৩ সদস্যের ট্রাইব্যুনাল-১ এ রায় ঘোষণা করেন। ট্রাইব্যুনালের অন্য দুই সদস্য হচ্ছেন বিচারপতি জাহাঙ্গীর হোসেন ও বিচারপতি আনোয়ারুল হক।
একাত্তরে হত্যা, গণহত্যা, লুটপাট, ও অগ্নিসংযোগসহ মানবতাবিরোধী অপরাধের ৫ অভিযোগে তার বিরুদ্ধে এ অদেশ দেন ট্রাইব্যুনাল।
আদেশে বলা হয়, আবদুল জব্বারের বিরুদ্ধে আনা ৫টি অভিযোগের সবকটি প্রমাণিত হয়েছে। তার অপরাধ ফাঁসিযোগ্য। তবে বয়স বিবেচনায় সাজা কমিয়ে তাকে আমৃত্যু কারাদন্ডের আদেশ দেয় হল।
এর মধ্যে ১, ২, ৩ ও ৫ নং অভিযোগে আমৃত্যুদণ্ড কারাদণ্ড ও ৪ নং অভিযোগে ২০ বছরের কারাদণ্ডসহ ১০ লাখ টাকা জরিমানা ও অনাদায়ে আরো ২ বছরের কারাদণ্ডাদেশ দেয়া হয়।
আবদুল জব্বারের অনুপস্থিতিতে তাকে পলাতক দেখিয়ে এই মামলার বিচারিক কার্যক্রাম সম্পন্নের পর এ রায় ঘোষণা করা হল।
গত বছরের ৩ ডিসেম্বর থেকে মামলাটির বিচারিক কার্যক্রম সম্পন্ন হয়। এরপর রায় ঘোষণার জন্য মামলাটি অপেক্ষমান রাখেন আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল-১।
ইঞ্জিনিয়ার আব্দুল জব্বারের বিরুদ্ধে মানবতাবিরোধী অপরাধের ৫ অভিযোগের মধ্যে রয়েছে ৩৬ জনকে হত্যা-গণহত্যা, ২শ’ জনকে ধর্মান্তরিতকরণ এবং লুণ্ঠন ও অগ্নিসংযোগ করে ৫শ’ ৮৭টি বাড়ি-ঘর ধ্বংস করা।
১৯৮৮ ও ১৯৮৬ সালে জাতীয় পার্টির সংসদ সদস্য ছিলেন ইঞ্জিনিয়ার জব্বার। ৮০ বছর বয়সী জব্বার যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডায় ছেলে-মেয়ের কাছে পালিয়ে আছেন বলে ধারণা করছেন প্রসিকিউশন।